মেইন ম্যেনু

স্কুলছাত্রী নিতু হত্যায় মিলনের দায় স্বীকার

মাদারীপুরের নবগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী নিতু মন্ডলের হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন গ্রেফতার প্রতিবেশী বীরেণ মন্ডলের ছেলে মিলন মন্ডল।

সোমবার বিকেল ৪টার দিকে মাদারীপুর মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের জ্যেষ্ঠ হাকিম ফৌজিয়া হাফসার কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি।

এর আগে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে পুলিশ মিলনের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। পরে মিলন মন্ডল হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হন। দীর্ঘ আড়াই ঘন্টা জবানবন্দি নেয়ার পর মিলনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। আজ দুপুরে নিতু হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ডাসার থানার নবগ্রাম ইউনিয়নের আইসারকান্দি গ্রামে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় গতকাল রোববার সকালে স্কুলে যাবার পথে নিতু মন্ডলকে (১৪) ছুরি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে প্রতিবেশী বীরেণ মন্ডলের ছেলে মিলন মন্ডল।

নিহত নিতু মন্ডল একই গ্রামের নির্মল মন্ডলের মেয়ে। হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় মিলন মন্ডল আটক করে পুলিশে দেয় গ্রামবাসী। গতকাল রোববার রাতে এ ঘটনায় নিতুর বাবা নির্মল মন্ডল বাদী হয়ে মিলন মন্ডলকে আসামি করে ডাসার থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডাসা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) বায়েজীদ মৃধা জানান, মিলনকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালতে মিলন ১৬৪ ধারায় খুনের কথা স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। এ সময় মিলন নিতুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার কথা স্বীকার করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।