মেইন ম্যেনু

স্কুলের বাথরুমে ছাত্রী ধর্ষণ, কলেজছাত্র আটক

কালকিনি (মাদারীপুর): স্কুলের বাথরুমও কি আর নিরাপদ থাকবে না? প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাথরুমেও কি সঙ্গে রাখতে হবে কোনো বান্ধবীকে? দুদিন আগে এমনই এক ঘটনা ঘটেছে কালকিনি উপজেলার বাশগাড়ি এলাকার খাসেরহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজে।

প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে স্কুলের বাথরুমে যাওয়ার পর এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে একই প্রতিষ্ঠানের এক ছাত্র। মঙ্গলবার বিকেলে নাজমুল সরদার (২০) নামের ওই ছাত্রকে আটক করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আটক নাজমুল খাসেরহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও কালাইরচড় গ্রামের খোকন সরদারের ছেলে। ধর্ষিতা ছাত্রী একই প্রতিষ্ঠানের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ক্লাস চলাকালে ওই ছাত্রী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাথরুমে যায়। এসময় নাজমুল ওই বাথরুমে সবার চোখ ফাঁকি দিয়ে ঢুকে পড়ে। এরপর ছাত্রীটিকে ধর্ষণ করে। এসময় মেয়েটির চিৎকারে ছুটে আসেন শিক্ষকরা। দ্বিকবিদিক ছুটে পালায় ওই ধর্ষক।

পরে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে কালকিনি থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পরে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সঞ্জয় সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে নাজমুলকে আটক করে।

কালকিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্দু বালা বলেন, ধর্ষিতা নিজেই বাদী হয়ে থানায় মামলা করছে।