মেইন ম্যেনু

স্টেশনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীরা

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের সুবিধার্থে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। সোমবার (১২ জুন) সকাল ৮টা থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে টিকিট প্রত্যাশীরা গতরাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন। লাইনে দাঁড়ানো প্রতি যাত্রীকে চারটি করে টিকিট দেয়া হচ্ছে।

আজ (১২ জুন, সোমবার) আগামী ২১ জুনের ট্রেনের অগ্রিক টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কিনতে রাজধানীর কমলাপুর রেল স্টেশনে রীতিমতো যুদ্ধে নেমেছেন বাড়িফেরা মানুষগুলো। তেমনি একজন ইব্রাহিম, যিনি রোববার দিনগত রাত তিনটায় থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আজ (সোমবার) চট্টগ্রামে যাওয়ার টিকিট পেয়েছেন।

ইব্রাহিম বলেন, সাড়ে ৫ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার পর টিকিট পেয়েছি। ঈদে বাড়ি যেতে পারব। পরিবারকে সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে ঈদ করতে পারব, এটাই আনন্দ।

রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট প্রত্যাশী আল আমিন আজ সকাল ছয়টায় লাইনে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, গত ঈদে বাড়ি গিয়েছিলাম, আবার এ ঈদে বাড়ি যাচ্ছি। মা-বাবা সবাই গ্রামে থাকেন, তাদের ছেড়ে কি ঈদ করা যায়। তাই এই টিকিট যুদ্ধ।

কমলাপুর রেল স্টেশনের ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী জানান, ভোর থেকে দীর্ঘ লাইনে টিকিটের জন্য অপেক্ষা করছেন যাত্রীরা। সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় এবার ট্রেনের অগ্রিম টিকিট দেয়া হচ্ছে। এখনো পর্যাপ্ত টিকিট রয়েছে, কোনো সমস্যা হয়নি।

উল্লেখ্য, রেলমন্ত্রী মুজিবুল হকের ঘোষণা অনুযায়ী এবার পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের সুবিধার্থে আজ ১২ জুন (সোমবার) থেকে ঢাকা ও চট্রগ্রাম রেল স্টেশন থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। প্রথম দিন অর্থাৎ আজ ১২ জুন দেয়া হচ্ছে ২১ জুনের টিকিট। এরপর ১৩, ১৪, ১৫ ও ১৬ জুন যথাক্রমে ২২, ২৩, ২৪ ও ২৫ জুনের টিকিট বিক্রি করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই