মেইন ম্যেনু

স্তন ফেটে মৃতপ্রায় এক নারী

নিজেকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় করতে পশ্চিমা নারীদের মধ্যে অনেকেই ব্রেস্ট ইমপ্লান্ট করে থাকেন। কৃত্রিমভাবে স্তন বড় করার পেছনে বেশ বড় অংকের অর্থ গুণতে হয়। তবে এবার এই অপারেশনের পর ইংল্যান্ডের এক নারী স্তন ফেটে মরে যাওয়া হতে ফিরে এসেছেন।

অস্ট্রেলিয়ার নিউজ ডটকমের খবরে বলা হয়, ডেনি লিজ নামে ২৪ বছর বয়সী নারী বন্ধুর পরামর্শে অল্প খরচে ব্রেস্ট ইমপ্লান্ট করেছিলেন বেলজিয়ামের একটি ক্লিনিকে।

সার্জারির দু’সপ্তাহের মাথায় প্রথমে জ্বর আসে। তারপর স্তন ফেটে পুঁজ বেরোতে শুরু করে।

সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ডেনিকে। চিকিৎসকরা বলেন, তার স্তনে রক্তের মধ্যে বিষক্রিয়ার ফলেই এমনটি ঘটেছে।

পরদিন আরেক সার্জারির মাধ্যমে তার ইমপ্লান্ট করা স্তনকে আবার ছোট আকারের বানিয়ে দেওয়া হয়। তবে ডান দিকে স্তনটিতে ইনফেশন না হওয়ায় সেটিকে আর ছোট করতে হয়নি।

কারণ হিসেবে জানা যায়, ইমপ্লান্ট সার্জারির দু’ সপ্তাহের মাথায় যৌনমিলনের সময়ে অতিরিক্ত পেষণই দায়ী এ দুর্ঘটনার জন্য।

ডেনির ছেলে বন্ধু এডওয়ার্ড (২৬) নিউজকে জানান, ‘সার্জারির ৯ দিন পর আমি সেখানে অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করি।’

তিনি জানান, ডেনি এখন বেলজিয়ামের সেই হাসপাতালের বিরুদ্ধে আইনি লড়াই চালাবে।

ডেনি বলেন, ‘যখন আমার মা ও ছেলে বন্ধু আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিল তখনো সেটা থেকে পুঁজ পড়ছিল। আমি খুব ভয় পেয়েছিলাম।’