মেইন ম্যেনু

স্ত্রীকে দিয়ে দেহব্যবসা: ক্ষুব্ধ স্ত্রী কেটে নিল স্বামীর পুরুষাঙ্গ

স্ত্রীকে দিয়ে দেহব্যবসা করায় স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে নিল স্ত্রী স্ত্রীকে দিয়ে জবরদস্তি দেহব্যবসা করানোর খেসারত দিলো নির্মাণ শ্রমিক হাফিজুল (২৮)। পুরুষাঙ্গ হারিয়ে ঢামেক হাসপাতালে সে যন্ত্রণায় ছটফট করছে। মঙ্গলবার সকালে আড়াইহাজার পৌরসভার ঝাউগড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নির্মাণ শ্রমিকের স্ত্রী রুবি আক্তারকে (২১) ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, বেলা ১১টার দিকে ঝাউগড়া এলাকার আহাম্মদ আলীর বাড়ির ভাড়াটে নির্মাণ শ্রমিক হাফিজুলের আর্তচিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসে। এ সময় হাফিজুল লুঙ্গি চেপে ধরে কাতরাতে থাকে। তার স্ত্রী’র হাতে ছুরি দেখে সবাই ঘটনা বুঝতে পারে।

রুবি আক্তারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, স্বামী বাসার কাছে নির্মানাধীন ফলিত পুষ্টি ইন্সিটিটিউট-এর ভবন নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করেন। স্বামী হাফিজুল প্রতিদিন কাজ শেষে তার ২/৩ জন সহকর্মীকে বাসায় নিয়ে এসে রুবিনাকে তাদের সঙ্গে অবৈধ ভাবে মেলামেশা করতে বলে। ফলে প্রতি জনের কাছ থেকে ৪/৫ শত টাকা করে পাবে। বলে সে রুবিনাকে জানায়। কিন্তু রুবিনা তাতে রাজী না হলে ঘটনার সময় ২ সহকর্মী সহ হাফিজুল রুবিনাকে চাপ প্রয়োগ করে। এর এক পর্যায়ে রুবিনা ধারালো ছুরি দিয়ে হাফিজুলের লিঙ্গ কেটে দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়। ফলে হাফিজুল গুরুতর রক্তাক্ত আহত হয়ে ছটফট করতে থাকে। টের পেয়ে আশেপাশের লোকজন রুবিনাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে এবং হাফিজুলকে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যায়। কিন্তু তার অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় ডাক্তার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।