মেইন ম্যেনু

স্ত্রীর স্মরণে চার মাইল সূর্যমুখীর বাগান!

পৃথিবীতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অস্বাভাবিক ভালবাসার কথা জানা যায়। সম্রাট শাহজাহান তার ভালবাসার জন্য তাজমহল বানিয়েছিলেন। যা আজও বিশ্ববাসীর নিকট একটি অতি সুন্দর পর্যটন কেন্দ্র ও সত্যিকারের ভালবাসার নিদর্শন।

শোকার্ত একজন স্বামী তার স্ত্রীর মৃত্যুর পর তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সবচেয়ে অসাধারণ এক প্রচেষ্টা করেছেন। ডন জেকুশ নামের জনৈক একজন কৃষক তার স্ত্রীর স্মরণে ৪ মাইল জায়গা জুড়ে সূর্যমুখীর চাষ করেছেন।

জেকুশ তার স্ত্রী বেবেট এর জন্য উইসকনসিনে এই বাগান তৈরি করেন। বেবেট প্রায় ছয় বছর পর্যন্ত ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। তখন তিনি আশার আলো হিসেবে সূর্যমুখীর বীজ রোপণ করেছিলেন। এই গাছ থেকে টাকা আয় করে ক্যান্সারের রোগীদের চিকিৎসা করানোর জন্য ও গবেষণা করার জন্য ব্যবহার করা হয়।

যখন জেকুশের স্ত্রী মৃত্যুশয্যায় ছিলেন তখন তিনি তাকে ওয়াদা করেছিলেন যে, তিনি ৪ মাইল এলাকা জুড়ে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করবেন। তিনি তার ওয়াদা পূরণ করেছেন। এখন সেই গাছে ফুলে ফুলে ভরে গেছে।

wi222

তিনি উইসকনসিন রাজ্যের ৮৫ নং রোডে এই বাগান তৈরি করেন। তার মেয়ে জেনি হোয়াইট এবিসি নিউজকে বলেন, “আমি বলে প্রকাশ করতে পারব না, জায়গাটি কত সুন্দর মনে হচ্ছে। আমরা চাই এটা যেন ভালবাসার একটি বিবৃতি হয়ে সকলের নিকট প্রকাশ পায়। ৪.৫ মাইল এলাকা জুড়ে এই বাগান আমার মায়ের জীবনের মত সুন্দর”।

ডন বলেন, “জীবনে যেই একবার বেবেট এর সাথে দেখা করেছেন সে তার প্রেমে পড়ে গেছেন। আমি একমাত্র সেই সৌভাগ্যবান ব্যক্তি যার প্রেমে বেবেট পড়েছেন। আমাদের জীবনে সবকিছু ভালই ছিল”।–সূত্র: মেট্রো।