মেইন ম্যেনু

স্বপরিবারে দেশ ছাড়লেন আমির খান!

ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা নিয়ে মুখ খুলে তোপের মুখে থাকা বলিউড স্টার আমির খান দেশ ছেড়েছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁকে মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দেখা গেছে। ভারতের বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম এ সংবাদ প্রকাশ করেছে।সংবাদের সঙ্গে একটি ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। এতে দেখা যায় পুলিশ প্রহরায় আমিরের পাশে তাঁর ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রী কিরণ রাও রয়েছেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে গেছেন বলে সূত্রের খবরে জানা গেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আমিরের নতুন ছবি ‘দঙ্গল’-এর শুটিংয়ে পাঞ্জাবের লুধিয়ানায় অবস্থান অবস্থান করছিলেন তিনি। এরই মধ্যে তাঁর হোটেলের সামনে বিক্ষোভ দেখায় শিবসেনার কর্মী-সমর্থকরা। এরপর পাঞ্জাব পুলিশ তাঁর নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেয়। তবুও ‘নিরাপত্তা শঙ্কায়’ চলচ্চিত্রটির পরিচালক নীতেশ তিওয়ারি শুক্রবার শুটিং বন্ধ রাখেন।

এরপর শুক্রবার সন্ধ্যায় আমিরকে পরিবারসহ মুম্বাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দেখা গেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে।

এর আগে গত সোমবার এক অনুষ্ঠানে আমির বলেছিলেন, “গত সাত-আট মাস ধরে ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা চলছে। সমাজের মানুষের মধ্যে ‘নিরাপত্তাহীনতা’ এবং ‘ভয়’ কাজ করছে।” এ ছাড়া ধর্মীয় অসহিষ্ণুতার কারণে ভারত ছাড়ারও চিন্তা করেছিলেন বলে জানান তিনি। তার এই বক্তব্যে দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। আমির খানের বিরুদ্ধে সরব হয়ে উঠে বিজেপি, শিবসেনাসহ কট্টর হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো। এমনকি তার বিরুদ্ধে হত্যার হুমকিও আসে বিভিন্ন মহল থেকে। অবশেষে এসব হুমকির মুখেই আমির খান দেশ ছেড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।