মেইন ম্যেনু

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবে ইসিবির প্রতিনিধিদল

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে আসার কথা ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের। তার আগে এখানকার সার্বিক নিরাপত্তাব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে বুধবার ঢাকায় আসছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) নিরাপত্তা প্রতিনিধিদল।

তিন দিনের এই সফরে ইসিবির নিরাপত্তা প্রতিনিধিরা বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার হাইকমিশনারের সঙ্গে বৈঠক করবেন তারা। এমনটাই জানিয়েছে বিসিবি।

এ ব্যাপারে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা ইসিবির সঙ্গে গত কয়েক মাস ধরে ধারাবাহিকভাবে যোগাযোগ করে আসছি। ঢাকায় আসার পর তাদের সঙ্গে ব্রিটিশ ও অস্ট্রেলিয়ান হাইকমিশন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আমাদের নিরাপত্তা দলের বৈঠকটি বেশ গুরুত্ব বহন করবে।’

এই প্রতিনিধি দলে আছেন ইসিবির নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ রেগ ডিকাসন, খেলোয়াড়দের সংগঠনের প্রধান নির্বাহী ডেভিড লিথারডেল, ইসিবির ক্রিকেট অপারেশনস পরিচালক জন কার। তারা এখন ভারতে রয়েছেন। বাংলাদেশ সফরের পরই ইংল্যান্ড দল যাবে ভারতে। তাই ভারতের বিভিন্ন ভেন্যু পরিদর্শন করছেন তারা।

ইসিবির নিরাপত্তা প্রতিনিধিরা সরকারের ওপরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে চাইলে, সেটাও করিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান জালাল ইউনুস। শুধু বাংলাদেশ নয়, নিরাপত্তা ইস্যুটি যে এখন সারা বিশ্বের, সেটাও উল্লেখ করেন তিনি।

জালাল ইউনুস বলেন, ‘তারা যদি চায় তবে সরকারের ওপরের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও তাদের আলোচনা করিয়ে দেওয়া হবে। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড শুধুমাত্র বাংলাদেশেই না, এটি লন্ডন, প্যারিস অথবা ভারতের মতো দেশেও ঘটেছে। তবে এটার মানে এই নয় যে, খেলা বন্ধ থাকবে।’

সম্প্রতি গুলশানের হলি আর্টিজান ও শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার পর থেকে ইংল্যান্ড দলের বাংলাদেশ সফরকে ঘিরে এক ধরনের অনিশ্চয়তা। ইসিবির নিরাপত্তা প্রতিনিধিদলের প্রতিবেদন দেখার পর বাংলাদেশ সফরের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে ইসিবি।