মেইন ম্যেনু

স্বামী বিদেশে, প্রেমিককে নিয়ে হোটেলে এসে…

চাঁদপুর শহরের জে এম সেনগুপ্ত রোডস্থ পূরবী শপিং কমপ্লেক্সের ৩য় তলার হোটেল শেরাটন থেকে প্রবাসীর স্ত্রী,পরকীয়া প্রেমিক ও হোটেল বয়সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার টিএসআই নুরুল হক ও এটিএসআই সুদর্শন কুঁড়ি হোটেলের ১০২ নং কক্ষে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটক হালিমা আক্তার জানান, ২০০৫ সালে একই উপজেলার গজরা গ্রামের সৌদি প্রবাসী আল আমিনের সাথে তার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে মিনহাজ নামে আট বছরের একটি সন্তান রয়েছে। সৌদি যাওয়ার পর থেকে তার স্বামী সবসময় তাকে মোবাইলে গালমন্দ করতেন। এক বছর আগে নোয়াখালীর শশীজব্বার গ্রামের জয়নাল আবেদিনের ছেলে মোছলেহ উদ্দিন রানার সাথে তার পরিচয় হয়। এ পরিচয়ের মাধ্যমে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মোছলেহ উদ্দিন রানা ইতিপূর্বে আরও একবার তাকে নিয়ে হোটেল শেরাটনে রাত্রীযাপন করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার বিকালে প্রেমিক মোছলেহ উদ্দিন রানা প্রবাসীর স্ত্রী হালিমাকে বেড়ানোর নাম করে সন্ধ্যায় চাঁদপুর নিয়ে আসেন। রাত সাড়ে ৭টায় তারা হোটেল শেরাটনে ১০২ নং কক্ষ স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ভাড়া নেন। ওই রাতে রানা প্রবাসীর স্ত্রী হালিমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন।

শুক্রবার বেলা ১১টায় টিএসআই নুরুল হক ও এটিএসআই সুদর্শন কুঁড়ি হোটেলের ১০২ নং কক্ষে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

প্রসঙ্গত, হোটেল শেরাটনে দিবারাত্রি এ ধরনের অবৈধ কাজ চলছে বলে অভিযোগ রয়েছে। আর এসবের হোতা হোটেল বয় আলামিনসহ বেশ কয়েকজন। পুলিশ এই হোটেলে গত দুই মাসে কমপক্ষে ২০ বার অভিযান চালিয়ে বহু এ ধরনের তরুণ-তরুণী ও প্রেমিক-প্রেমিকাকে আটক করেছে।