মেইন ম্যেনু

স্মুদিতে যোগ করুন এই উপাদানগুলো, কমবে ওজন!

স্মুদির নানাবিধ উপকারিতার জন্য বর্তমানে এটি প্রচুর জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। স্মুদি তৈরি হয় সবজি ও ফল দিয়ে, যা অনেক সুস্বাদু ও পুষ্টিকর। স্মুদির উপকারিতাগুলো হচ্ছে এনার্জি লেভেল বৃদ্ধি করে, ওজন কমতে সাহায্য করে, রোগ ও দীর্ঘস্থায়ী সমস্যা প্রতিরোধ করে, দ্রুত নিরাময়ে সাহায্য করে ইত্যাদি। এই উপকারিতাগুলো পাওয়ার কারণ হচ্ছে ফল ও সবজিতে উচ্চমাত্রার ফাইবার ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। এমন কিছু উপাদান আছে যা স্মুদিতে যোগ করলে বিপাকের হার বৃদ্ধি পায় এবং ওজন কমায় সাহায্য করে। স্মুদিতে যোগ করার এমন কিছু উপাদানের কথাই আজ জেনে নিই চলুন।

১। প্রোটিন পাউডার

স্মুদিতে যখন প্রোটিন পাউডার যোগ করা হয় তখন তা মেটাবোলিজমকে উদ্দীপিত হতে সাহায্য করে। প্রোটিন হজম হতে কার্বোহাইড্রেটের চেয়ে বেশি সময় লাগে। শরীরকে দীর্ঘসময় ধরে কাজ করতে সাহায্য করে প্রোটিন।

২। গোলমরিচ

স্মুদিতে গোলমরিচ যুক্ত করা হলে বিপাকের গতি বৃদ্ধি পায়। গোলমরিচে ক্যাপসাইসিন থাকে যা তাপ উৎপন্ন হতে সাহায্য করে। ফলে নির্দিষ্ট সময়ে মেটাবোলিজমকে উদ্দীপ্ত হতে সাহায্য করে। এটি ক্যালরি পুড়তে ও সাহায্য করে।

৩। Matcha গ্রিনটি

গ্রিনটি এর গুঁড়া হচ্ছে Matcha green tea, যা স্মুদিতে যোগ করলে মেটাবোলিজম উদ্দীপিত হয়। এতে উচ্চমাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে বলে মেটাবলিজমের গতি বৃদ্ধি করতে পারে বেশ ভালো পরিমাণে।

৪। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার

ওজন কমানোর জন্য এবং বিপাকের হার বৃদ্ধি করার জন্য আপনার স্মুদিতে অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার যোগ করুন। এর কারণ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখতে চমৎকার ভাবে কাজ করে। এটি চিনি ও অপ্রয়োজনীয় খাবার খাওয়া প্রতিরোধ করে।

৫। আমন্ড বাটার

যখন স্মুদিতে আমন্ড বাটার যোগ করে পান করা হয় তখন তা পেটের মেদ ও কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।

৬। অ্যাভোকাডো

স্মুদিতে অ্যাভোকাডো যুক্ত করা হলে পেটের মেদ এবং সার্বিক ওজন কমাতে সাহায্য করে। কারণ এতে মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাটি এসিড (MUFAs) থাকে। এটি ইনফ্লামেশন কমতেও সাহায্য করে। এছাড়াও অ্যাভোকাডোতে উচ্চমাত্রার ফাইবার থাকে বলে তৃপ্তি দেয় এবং ইনসুলিনের সংবেদনশীলতার উন্নতি ঘটায়। ফলে শরীরে চর্বি জমা হতে বাঁধা দেয়।