মেইন ম্যেনু

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আত্রাইয়ের ৫ যুবকের দাফন সম্পন্ন, পরিবারে শোকের মাতম

দরিদ্র পরিবারের অভাব দুর করতে কাজের সন্ধানে গত সোমবার ভোর রাতে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়া নওগাঁর আত্রাইয়ের ৫ যুবকের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তথ্যঅনুসন্ধানে জানাযায়, আত্রাই উপজেলার উত্তরবিল গ্রামের সাদেক আলীর ছেলে টিপু সুলতান (৫০), নূর উদ্দিন মোল্লার ছেলে আলম মোল্লা (৩০), রিয়াজ মোল্লার ছেলে সাইফুল মোল্লা (৪০), জিয়াউর রহমানের ছেলে রুবেল প্রামানিক (২২) এবং মৃত অপির মন্ডলের ছেলে কালাম মন্ডল (৩০)।

দুপুরে গ্রামে খবর আসে সড়ক দুর্ঘটনায় ওই ৫ যুবক মারা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে নিহতদের পরিবারে লাশ পৌঁছার পর থেকে নিহত যুবকদের পরিবারসহ গ্রামটিতে নেমে আসে শোকের মাতম। প্রিয়জনের মৃত্যুও খবর যেন স্তব্দ করে দিয়েছে স্বজনদের।

জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন স্ত্রী সন্তান, পিতা, মাতা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। কান্নার রোল পরে যায় গ্রামের সাধরণ মানুষের মাঝে। কান্না আর আহাজারীতে ভারী হয়ে ওঠে এলাকার পরিবেশ। নিহত সাজেদুর রহমানের স্ত্রী রোকসানা বেগম এর সাথে কথা বলতে তার বাড়ি গিয়ে দেখা গেছে বার বার সে অজ্ঞান হয়ে পড়ছে।

জানা গেছে তার ৩ টি পুত্র সন্তান রয়েছে। ২য় সন্তান শারিরীক প্রতিবন্ধি। জোতসম্পত্তি বলতে তেমন কিছু নেই তাদের। কেবল মাত্র পিতার পৈত্রিক ভিটা ও মাথা গোজার ঠাঁই টুকু রয়েছে। একই গ্রামের আলম হোসেন মোল¬ার স্ত্রী সভেদা বেগম জানান, তাদের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

আলমের পিতা নূর হোসেন জানান সাংসারিক অভাবের কারনে নূর হোসেন চট্টগ্রামে কাজ করতে যাচ্ছিল। রুবেল হোসেন এর স্ত্রী বিউটি বেগম নববধু। গত ৯ মাস পুর্বে তার বিয়ে হয়েছে। বিউটি বেগম ৩ মাস এর অন্তঃস্বত্তা। তার পিতা জিয়াউর রহমান জানান এলাকায় বন্যা হওয়ার ফলে অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। কাজ না থাকায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। কালাম মন্ডলের এর স্ত্রী মাজেদা বেগম এর সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হলে, তিনি বারবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলছিলেন।

এ সময় তার পিতা আপির উদ্দিন মন্ডল জানান তার ছেলের ২ টি ছেলে ১ টি মেয়ে মিলে ৩ টি সন্তান রয়েছে। জোতসম্পত্তি থাকলেও অতি সামান্ন। একই গ্রামের নিহত যুবক টিপু হোসেনের স্ত্রী ধলি বেগমের সাথে কথা বলা হলে, তিনি অশশ্র“শিক্ত নয়নে বলেন তাদের ৩ টি মেয়ে সন্তান রয়েছে। সংসারে উপার্জনের আর কেউ রইল না। সস্তাানদের ভবিষ্যৎ নিয়েই সে বারবার বিলাপ করছে।

এ বিষয়ে হাটকালুপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক দুলুর সাথে কথা বললে তিনি জানান, নিহতদের ধনসম্পদ থাকার মধ্যে বলতে গেলে শুধুমাত্র ঘরবাড়ী ছাড়া আর কিছুই নেই। এরমধ্যে দু’তিনজনের মাটির ভাঙ্গা ঘরবাড়ী। তারা দিনমজুর হওয়ায় তাদের হাতে জমাকৃত কোন টাকা পয়সা নেই। তিনি নিহতদের পরিবারকে সরকারী ভাবে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার দাবী জানান।