মেইন ম্যেনু

সড়ক ভবনে ঢুকে প্রকৌশলীকে পেটালো ছাত্রলীগ

সিলেটে সড়ক ভবনে ঢুকে প্রকৌশলীসহ তিনজনকে পিটিয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বুধবার বিকালের দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রলীগের হামলায় আহতরা হলেন- সড়ক বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী আবুল বরকত মোহাম্মদ খুরশিদ আলম, অফিস সহকারী ফরিদ ও এরশাদ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল পৌনে তিনটার দিকে কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে ১৫/১৬ জন যুবক নিজেদের ছাত্রলীগ কর্মী পরিচয় দিয়ে সড়ক ভবনে প্রবেশ করে। ভবনে ঢুকেই তারা সড়ক বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী আবুল বরকতকে বেধড়ক পেটায়। তাকে বাঁচাতে অফিস সহকারী এরশাদ ও ফরিদ এগিয়ে আসলে তাদেরকেও পেটায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ সময় তারা প্রকৌশলীর অফিসে ব্যাপক ভাঙচুরও চালায়। সড়ক ভবনের কর্মকতা-কর্মচারীরা আহতদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাসায় পাঠায়।

আহত অফিস সহকারী ফরিদ আহমদ জানান, হঠাৎ করেই ১৫-১৬ জন যুবককে নিয়ে অফিসে প্রবেশ করেন ঠিকাদার নান্টু। অফিসে ঢুকে কিছু বুঝে উঠার আগেই তারা স্যারকে মারধর শুরু করে। এর মধ্যে দু’একজন স্যারকে চেয়ার দিয়ে আঘাত করেন। স্যারকে বাঁচাতে আমি ও এরশাদ এগিয়ে গেলে তারা আমাদেরকেও মারধর করে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল আহমদ জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

হামলাকারীরা ছাত্রলীগের কর্মী নয় দাবি করে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান জানান, হামলাকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের কোন সম্পর্ক নেই। যারা ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করে এসব অপকর্ম করছে তাদেরকে আটক করে পুলিশে দিতে হবে। ছাত্রলীগে কোন সন্ত্রাসীর স্থান নেই।