মেইন ম্যেনু

হঠাৎ ব্যস্ততম শাহবাগে হিরো আলম

মঙ্গলবার রাত ৯টা। রাজধানীর ব্যস্ততম জায়গা শাহবাগ স্কয়ার, যেখানে থাকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের পদচারণা। পাশেই ঢাকা জাদুঘর, পাবলিক লাইব্রেরি, চারুকলা হওয়ায় সন্ধ্যার পরই আড্ডা জমে সেখানে। রাতেও ছিল। কিন্তু একটি স্থানে দেখা গেল জটলা। আসছে ক্যামেরার শব্দ, যেখানে মানুষ হাত উঁচিয়ে সেলফি তুলছে। কারণ কী। কাছে যেতেই দেখা গেল হিরো আলম। তাকে ঘিরে ধরেছে সবাই।

হিরো আলম, এই নামটিই এখন যথেষ্ট। যিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিশেষ করে ফেসবুক ও ইউটিউবে ঝড় তুলেছেন তার ‘হিরোগিরি’ দিয়ে। ইউটিউবে যার প্রতিটি ভিডিও গানের দর্শক ১০ হাজার থেকে ১০ কোটি। বহুল প্রচারিত পত্রিকাগুলোতে তাকে নিয়ে ছাপা হয়েছে প্রতিবেদন। অনেক টিভি চ্যানেল নিয়েছে তার সাক্ষাৎকার। এমনকি অনেক জনপ্রিয় খেলোয়ারও তার সাথে সেলফি তুলে পোস্ট দিয়েছেন নিজেদের পেজে। গত দুই-তিন মাসের সবচেয়ে আলোচিত নাম ‘হিরো আলম’।

হিরো আলমকে শাহবাগে পেয়ে ছবি তোলায় ব্যস্ত সবাই। তাদের মধ্যে একজন তরুণ শাফায়েত আহমেদ। থাকেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলে। কয়েকবার চেষ্টার পর একটি সেলফি তুললেন হিরো আলমের সাথে। ছবি তোলার পর তার অনুভূতিটা জানালেন এভাবে, ‘ভাই আমি টিএসসিতে ছিলাম। সেখানে জানতে পারি শাহবাগে হিরো আলম এসেছে। ওখান থেকে প্রায় দৌড়ে এসে ছবি তুললাম। আসলে আমাদের ক্যাম্পাসে অনেক সেলেব্রেটিই আসে বিভিন্ন নাটক সিনেমার শ্যুটিং করতে। কিন্তু তাদের সঙ্গে ছবি তোলার জন্য এত আগ্রহ কোনোদিন হয়নি।’

কারও আবদারই না করছেন না হিরো আলম। কেউ এসে বলছেন, ‘ভাই একটা ছবি তুলব।’ এগিয়ে হিরো আলম বলছেন, ‘তোলেন’। ঠাট্টা করে অনেকে তার পেছন থেকে উচ্চতা মাপছেন। আবার অনেকেই বলছেন, তিনি হয়ত বা দেখতে উত্তম কুমার বা শাকিব খানের মত নন। আর তিনি প্রমিত বাংলায় কথাও বলেন না। কিন্তু সাহস নিয়ে দাঁড়িয়েছেন ক্যামেরার সামনে। নিজের সুপ্ত বাসনার বাস্তবায়ন করতে নিজে নিজেই বিভিন্ন শিল্পীর গানের সঙ্গে নেচে-গেয়ে হয়েছেন হিরো আলম। প্রচলিত অভিনয়-ব্যাকরণের বাইরে তিনি মানুষকে দিয়েছেন আনন্দের খোড়াক।

এর মধ্যেই কথা হয় হিরো আলমের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘সোমবার গ্রামের বাড়ি বগুড়া থেকে নাটকের শ্যুটিংয়ের কাজে ঢাকায় এসেছেন। সেখানে করা ডিশ ও ক্যাবল নেটওয়ার্কের ব্যবসায় তার প্রধান আয়ের উৎস। তবে এখন কিছু টাকা মডেলিংয়ের মাধ্যমে আসছে। এ পর্যন্ত তিনি নিজের অর্থায়নে নিজে মডেল সেজে ৫০০টি গান তৈরি করেছেন। এর সঙ্গে আছে ২টি নাটক ও একটি সিনেমা। বর্তমানে তিনি তিনটি গান ও ‘হিরো আলমের জীবন কাহিনী’ নামের সিনেমা করতে যাচ্ছেন।

ছোটবেলায় বাবা-মা হারানোর পর এক প্রতিবেশি আত্মীয়র কাছে মানুষ হন তিনি। দুই সন্তান নিয়ে একটি সাজানো সুখের সংসারও আছে হিরো আলমের। সময় খুব কম, তাই আবারও ভক্তদের কাছে বিদায় নিয়ে এক নাটকের শ্যুটিংয়ের জন্য শাহবাগ ছাড়েন হিরো আলম।