মেইন ম্যেনু

হবু প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্যে হঠাৎ জনপ্রিয় পর্নোস্টার!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে হঠাৎ করেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন এক পর্নোস্টার। তেরিসা মে নামের সেই পর্নোস্টার টুইটার ট্রেন্ডে একেবারে ওপরের দিকে উঠে গেলেন। কিন্তু কেন?-কালেরকন্ঠ।

আসল কারণ বানান ভুল। তেরেসার তার নামের ইংরেজি বানানটা লেখেন Teresa May হিসেবে। এদিকে ব্রিটেনে হবু প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মসনদে বসতে চলেছেন টেরিজা মে। ব্রিটিশ মুলুকে দ্বিতীয় মহিলা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিতে চলেছেন টেরিজা।

এবার বুঝতে পারলেন কেন হঠাৎ টুইটারে এত জনপ্রিয় হয়ে গেলেন ওই পর্নোস্টার। এখন বুঝতে পারলেন না?আসলে ব্রিটেনের নয়া প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নাম ও পদবির অনেকটাই মিল ওই পর্নোস্টারের। দুজনেরই পদবি মে, দুজনের নামেও অনেকটা মিল। অমিল শুধু H অক্ষরটা ছাড়া। মানে পর্নোস্টারের নাম TERESA আর প্রধানমন্ত্রীর নাম THERESA। সাহেবের দেশ তো ওই H-টাকে কেউ পাত্তা দিচ্ছেন না।

তাই আর কী, অনেকেই ধরে ফেললেন তাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়তো ওই পর্নোস্টারই হচ্ছেন। তাতেই ট্রেন্ডিং শুরু। যে পর্নোস্টারের সঙ্গে এই কাণ্ড ঘটল, তিনি তো দারুণ খুশি। বলছেন, রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছে। অবশ্য সাহেবের দেশের লোকেরা সব জানতে পেরে জিভ কাটছেন। কারণ, বড় বয়সে বানান ভুল করলে জিভ কাটতে হয়।