মেইন ম্যেনু

হস্তমৈথুন স্বাস্থের পক্ষে ভাল, এমনটাই দাবি বিজ্ঞানীদের!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সম্প্রতি করা এক সমীক্ষা অনুযায়ী ৯৪% পুরুষ ও ৮৫% মহিলা হস্তমৈথুন করার কথা স্বীকার করেছেন। এই অভ্যাস অতন্ত স্বাভাবিক এবং গর্ভাবস্থায় থাকার সময় থেকেই শিশুরাও হস্তমৈথুন করে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

অস্ট্রেলীয় বিজ্ঞানী অ্যান্টনি সান্টেল্লা ও স্রিং সিনোয়া কুপারের মতে হস্তমৈথুন বা স্বমেহন মানুষকে সুস্থ রাখরে সাহায্য করে। সিসটিসিস, ডায়াবেটিস ও প্রোস্টেট ক্যান্সের মত রোগ গুলিকে দূরে সরিয়ে রাখে।

দ্য কনভার্সেশন নামের একটি ওয়েবসাইটে সান্টেল্লা ও কুপার লিখেছেন ”মহিলাদের ক্ষেত্রে সারভাইকাল মূত্র নালীর সংক্রমণ ঠেকাতে কার্যকরী ভূমিকা নেয় হস্তমৈথুন।

সারভিক্স টেনটিংয়ের ফলে ব্যাকটেরিয়া ভর্তি সারভাইকাল তরল বাইরে বেড়িয়ে আসে।”

এর ফলে বহু সময় অর্গাসম হয় যাতে বিভিন্ন হরমোনের ক্ষরণের ফলে অনিদ্রা ও মানসিকচাপ দূর হয়। কমে ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা

পুরুষদের ক্ষেত্রে প্রোস্টেট ক্যানসারে সম্ভাবনা কমায় হস্তমৈথুন। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন হস্তমৈথুনের সময় এমন কিছু হরমোন প্রোস্টেট গ্ল্যান্ড থেকে নিষ্কৃত হয় যা ক্যান্সারের কারণ হতে পারে।

স্বমেহননের ফলে মানসিক শান্তি বাড়ে। ফলে এন্ড্রোফিন্স ও কর্টিসলের লেভেল বৃদ্ধি পায়।