মেইন ম্যেনু

হাওয়া মে উড়তা যায়ে মেরা লাল দোপাট্টা…

পাহাড়ের বুক চিড়ে জল পড়ছে। ঝরনার আশেপাশে শত শত মানুষের ভিড়। উৎসুক চোখ। পাশে দাড়িয়ে জনতার কান্ড দেখছেন ভাবনা। ‘ভয়ংকর সুন্দর’ টিম তখন মাধবকুন্ডে। শুটিংয়ের প্রস্তুতি চলছে। ভিড় কমলেই শুটিং শুরু হবে। কিন্তু জনতার চোখ ঝরণা ছাপিয়ে নায়িকার উপর পড়ে। আরে ওকে টিভিতে দেখেছিনা!

শুটিংয়ের যোগাড়যন্ত্র দেখে লোকজন শেকড় বেঁধে দাড়িয়ে গেল। অনেক চেষ্টায় যখন তাদের সরানো হলো তখন পড়ন্ত বিকেল। প্রোডাকশন বয়রা ‘সান গেলো’, ‘সান গেলো’ বলে হা হুতাশ করতে থাকলো। ভাবনা-নায়ক রেডি। নায়িকার গায়ে লাল টকটকে শাড়ি। ভেজা চুল। চুলগুলো লুটোপুটি খাচ্ছে কপালে, গালে। প্লেয়ারে গান বাজানো হলো-হাওয়া মে উড়তা যায়ে মেরা লাল দোপাট্টা…। না না এটা গানের কথা নয়। গানের কথা ভাবনা ফাঁস করতে চাইলেন না বলে এ গান। কল্পনা করে নিন। সত্যিইতো লালে লাল ভাবনা। পরমও তাই। হাওয়ায় জলে হিম হিম ঠান্ডায় নাচলেন ভাবনা ও পরমব্রত।

শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা জানালেন, ‘এটিই আমার প্রথম সিনেমা। লিপে গান করেছি। এভাবে গান করবো ভাবিনি আগে। মাধবকুন্ডে প্রথম শুট করেছি। ঝরনায় শর্ট দিতে আরাম পেয়েছি। শুটিংয়ে এতোটাই মজে ছিলাম যে পা কেটে মাংস উঠে গেছে তবুও টের পাইনি!’