মেইন ম্যেনু

হাঙরের কামড়ে ক্ষত নারী পর্যটক

স্পেনের গ্রান ক্যানারিয়া দ্বীপে হাঙরের আক্রমনের শিকার হয়েছেন এক নারী পর্যটক। গত শুক্রবারের এই ভয়ংকর মুহূর্তের কথা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন পর্যটক ক্রিস্টিনা ওজিডা নিজেই।

তিনি লেখেন, ‘আজ আমি সরাসরি হাঙরের মুখোমুখি হয়েছিলাম। এই ঘটনার পর ডিসেম্বরে কেউ ক্যানারিয়া দ্বীপে সাঁতার কাটার আগে বিষয়টি ভেবে দেখবে।’

যদিও দ্বীপ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে বেশি মুখ খুলতে নারাজ। এটিকে দুর্ঘটনা বলে উল্লেখ করে ক্যানারিয়া কর্তৃপক্ষের শঙ্কা এই কারণে দ্বীপে পর্যটকের সংখ্যা হ্রাস পেতে পারে।

ওডিজা বলেন, ‘মনে হচ্ছিল আমার বাম হাত ধরে কেউ টানছে। কিন্তু আমি সেদিকে লক্ষ্য করিনি। এরপরে মনে হলো আমার হাতে কেউ হালকা কামড় দিলো। যখন বিষয়টি লক্ষ্য করলাম, হাত টেনে নিতে চাইলাম। কিন্তু তখন হাঙর জোরে এবং গভীর ক্ষত করে। এক সেকেন্ডেরও কম সময়ের মধ্যে এটি আমাকে গিলে ফেলতে চায়। আমি যতোই ছুটে আসতে চাচ্ছিলাম, এটি ততোই আমাকে টেনে নিচ্ছিল। এরপর আমি ডান হাত দিয়ে এটিকে আঘাত করি এবং দেখতে পাই বড় এটি মাছ। পরে দেখি না এতো হাঙর।’

তিনি আরও বলেন, ‘খুব অল্প সময় সেকেন্ডের মধ্যেই ঘটনাটি ঘটে যায়। এরপরও এটি বেদনাময় কোনো আক্রমন ছিল না। পানির নিচ থেকে উঠে আসার আগে পর্যন্ত আমি বুঝতেই পারিনি যে ক্ষতটা এতো গভীর।’
সেই সময়ে আমি শুধু ধূসর চোখের একটি মাছ দেখেছি, যার ত্বক খুব খসখসে।

ক্যানারিয়া দ্বীপের প্রেসিডেন্ট ফার্নেন্ডো ফ্রাইস বলেন, ‘আগামী ৫০ বছরের মধ্যেও এমন কোনো দুর্ঘটনা আর ঘটবে না। সুতরাং কারো ভয় পাওয়ার প্রয়োজন নেই।’