মেইন ম্যেনু

হাটহাজারীতে ভুয়া পুলিশ ও মদসহ এক বিক্রেতা আটক

মোঃ নুর মালেক, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে পুলিশের পোষাক পরিহিত অবস্থায় এক যুবক ও বাসস্ট্যান্ডের সায়মন হোটেলের সামনে হতে চোলাই মদসহ এক জনকে আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ। ২৮ ফেব্রুয়ারি সকালে তাদের আটক করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার নন্দীরহাট এলাকায় সকাল ৭টায় সিএনজি পাম্পের সামনে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময়ে সন্দেহ হলে সিএনজি চালকরা প্রথমে এটিএসআই আমানত উল্লাহকে খবর দিলে পুলিশের এ এস আই সম্বলিত ইউনিফর্ম পরিহিত যুবককে আটকে জিজ্ঞাসাবাদে ভুয়া প্রমাণিত হলে থানায় খবর দিলে এস আই মোঃ জিয়া উদ্দিন বাবলু স্পটে গিয়ে আটক দেখিয়ে তাকে থানায় নিয়ে আসে, এ সময় তার কাছে একটি ইউনিফর্ম, ওয়াটকি, হ্যান্ডকাপ ব্যাগ, পুলিশের ভুয়া আইডি কার্ড উদ্ধার করে।

আটককৃতের নাম মোঃ তানজিল আহমেদ (২৮), সে বিবাড়িয়া জেলার আখাউড়া থানার মোগরা বাজারের ভুইয়া বাড়ির মোঃ জসিম উদ্দিনের পুত্র।

দীর্ঘদিন ধরে আমান বাজারের আলাওল ম্যানসনে বসবাস করছেন বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

অপরদিকে হাটহাজারীর বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত সায়মন হোটেলের সামনে দেশীয় চোলাই মদ নিয়ে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে শহরের দিকে গমনের জন্যে গাড়ির জন্যে অপেক্ষা করছেন মর্মে গোপন সংবাদ পেয়ে এস আই আবু বক্কর সিদ্দিকের নেতৃত্বে এ এস আই মোঃ হেলাল উদ্দিন, এ এস আই আব্দুল আজিজ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে টাইগার ৫ এর সহযোগীতায় মোঃ সেলিম (৫০) কে হাতেনাতে ৮ লিটার চোলাই মদসহ আটক করে।

মোঃ সেলিম খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি থানার ডাইন ছড়ির গণি ফকিরের বাড়ির মৃত গণি মিয়ার পূত্র, সে দীর্ঘদিন যাবৎ আইনকে ফাঁকি দিয়ে যুব সমাজকে ধ্বংসকারী মাদক ব্যাবসার সাথে জড়িত বলে জানান এস আই আবু বক্কর।

ধৃতদের বিরুদ্ধে ১৭০/১৭১ ধারায় ও ১৯৯০ সনের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রুজু হয়েছে বলে জানান ওসি (ক্রাইম) মোঃ কামাল উদ্দিন।