মেইন ম্যেনু

হাটের শোভা ‘খানদানি’ গরু

রাজধানীর গরুর হাটগুলোতে এবার নজর কাড়ছে ১০ লাখি, ২০ লাখি গরু। হৃষ্টপুষ্ট এসব গরুকে বাজারে বলা হচ্ছে ‘খানদানি গরু’। কেনাবেচা যা-ই হোক এসব গরুর চারপাশে ভিড় লেগে থাকে সারাক্ষণ।

শুক্রবার আমাদের প্রতিবেদক গাবতলীর হাটে দেখে এসেছেন ২০ লাখ, ১৮ লাখ, ১৭ লাখ টাকা দামের গরু। ২০ লাখ টাকা দাম হাঁকা হচ্ছে যে গরুর, সেটির দাম ইতিমধ্যে উঠে গেছে ১১ লাখ টাকা।

পাঁচ-দশ লাখ টাকার গরু আকসার মিলছে গাবতলীর হাটে। রাজধানীর অন্যান্য হাটেও এসব খানদানি গরুর কমতি নেই।

শনিবার এই প্রতিবেদক রামপুরার কাছে আফতাবনগর গরুর হাট ঘুরে এসেছেন। সেখানেও খানদানি গরু ঘিরে উৎসুক দর্শকের ভিড়। ক্রেতা যে আসছে না তা নয়। তবে দাম শুনে অন্য দিকে চলে যান তারা।

আফতাবনগরের হাটে যে কটি খানদানি গরু দেখা গেছে, তার একটির মূল্য ১৭ লাখ টাকা হাঁকছেন বিক্রেতা। বগুড়া থেকে দুটি গরু নিয়ে রাজধানীর এ হাটে এসেছেন মজনু বেপারি।

হাটে সবচেয়ে বেশি ভিড় তার এই ১৭ লাখি গরু ঘিরে। দর্শনার্থীদের কেউ গরুর ছবি তুলছেন, কেউ বা সেলফি তুলছেন এই খান্দানি গরুর সঙ্গে।

তাদের একজন উচ্ছ্বসিত দর্শানার্থী মোবাইল ফোনে কাউকে বলছেন, ‘তুমি কই, আমি ১৭ লাখ টাকা দামের গরুর কাছে।’

পরে জানা গেলে এই দর্শনার্থীর নাম হামিদুর রহমান। তিনি রাজধানীর রামপুরা থেকে এসেছেন। হামিদুর বলেন, ‘কয়েক দিন ধরেই শুনতেছি হাটে ১৫-২০ লাখ টাকা দামের গরু আসছে। কৌতূহল মেটাতে হাটে আসছি।’

গরুর দাম এত বেশি চাইছেন কেন জানতে চাইলে বেপারি মজনু ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘এক বছর ধরে গরুটি পালতেছি। অনেক পরিশ্রম করেছি। লালন-পালনের খরচ তো আছেই। সে হিসাবে এর দাম কিন্তু বেশি চাইছি না।’

আবতাবনগরের হাটে আসা খানদানি গরুর মালিকদের প্রায় সবার বক্তব্যই মজনু বেপারির মতো।

কিন্তু ক্রেতারা বলছেন, যত যা-ই হোক গরুর দাম এত বেশি হতে পারে না। তারা বলছেন, গতবারের চেয়ে এবার অনেক বেশি দাম হাঁকা হচ্ছে।

একজন ক্রেতা মনে করেন, রাজধানীমুখী গরুবাহী ট্রাক রাস্তায় রাস্তায় যানজটে আটকা পড়ায় হাটের বিক্রেতারা সুযোগ নিচ্ছেন। যানজট কেটে গিয়ে গরুর আমদানি বাড়লে দামও কমবে।

তবে উত্তর বাড্ডার তানিম জাকারিয়া নামের একজন দর্শনার্থী বলেন, এসব খান্দানি গরু কেনার ক্রেতার অভাব নাই। দেখবেন ঠিকই বিক্রি হয়ে যাবে এগুলো।

এদিকে হাট ব্যবস্থাপনা সূত্রে জানা গেছে, গত দুই দিন তেমন বেচাকিনি না হলেও শনিবার বিক্রি বেশ বেড়েছে। হাটে ক্রেতার আগমনও বাড়ছে অনেক। আজ রবিবার সকাল হতে হতে কোরবানির হাটের বেচাকিনির মূল জোয়ারটা লেগে যাবে বলে তারা মনে করছেন।