মেইন ম্যেনু

হাতিরঝিলে যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ

রাজধানীর হাতিরঝিল থেকে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার ভোরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের নাম বা পরিচয়, তাকে কারা কখন হত্যা করেছে তাও বলতে পারছে না আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি। ওই যুবককে এখানেই গুলি করে হত্যা করা হয়েছে না কি অন্য কোথাও হত্যার পর মরদেহ এনে এখানে এনে ফেলা হয়েছে, সেটাও নিশ্চিত করতে পারেননি পুলিশ কর্মকর্তারা।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার উপরিদর্শক মাজেদুল ইসলাম বলেন, ‘গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ওই যুবককে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা আমাদেরকে খবর দেয়। পরে আমি মরদেহটি উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসি। সেখানে চিকিৎসক ভোর সাড়ে চারটার সময়ে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

রাজধানীর পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে পূর্বের অংশের সড়ক যোগাযোগ সহজ করতে হাতিরঝিল চালুর পর থেকেই এই এলাকায় রাতের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। নানা ঘটনার পর সন্ধ্যা থেকেই কঠোর নজরদারির ব্যবস্থা করে পুলিশ। দুই দিকেই তল্লাশির ব্যবস্থার পাশাপাশি অরক্ষিত এলাকায় নির্মাণ করা হয় নিরাপত্তা দেয়াল। গোটা এলাকাকে পর্যবেক্ষণে গোটা এলাকায় ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বসার কথা একাধিকবার জানিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যেই এই এলাকায় ঘটে নানা অপরাধ।

এর আগেও হাতিরঝিল থেকে একাধিক মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই খুনিকে শনাক্ত করা যায়নি। এসব কারণে এই এলাকায় রাতের নিরাপত্তা নিয়ে বরাবরই শঙ্কা রয়ে গেছে।

তবে হাতিরঝিলে নানা সময় ছিনতাইকারী বা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে পুলিশের গোলাগুলিতে প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে।