মেইন ম্যেনু

হাতিয়া রামগতির সন্ত্রাসীদের তান্ডব ৬টি রাস্তা ও ৫ হাজার গাছ কর্তন

এম.এ.আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী : নোয়াখালীর হাতিয়ায় উপজেলা সোমবার দিবাগত রাতে হাতিয়া রামগতি সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে হাতিয়ার ১নং হরণী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড তেগাছিয়া বাজার এলাকায় ৬টি রাস্তা ও রাস্তার পাশে থাকা প্রায় ৫ হাজার গাছ কেটেছে রামগতির চরগাজী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম সুমনের সন্ত্রাসী বাহিনীরা।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে হাতিয়ার সীমানাধীন তেগাছিয়া বাজারে রামগতি থানার একটি পুলিশ ফাঁড়ি অবস্থান করে। এ বিষয়ে হাতিয়া উপজেলা প্রশাসনের আপত্তির প্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম রেঞ্জ এর ডিআইজি’র আদেশ ক্রমে সোমবার পুলিশ ফাঁড়িটি প্রত্যাহার করা হয়।

এরপর গভীর রাতে পার্শ্ববর্তী রামগতি উপজেলার চরগাজী ইউ.পি চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম সুমন ও ফরিদ ডাকাতের নেতৃত্বে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী হাতিয়ার সীমানায় অবস্থিত তেগাছিয়া বাজার ও আশপাশের গুরুত্বপূর্ণ ৬টি রাস্তা ও কয়েক হাজার গাছ কেটে ফেলে।

এসময় এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং অনেকে নিরাপদ আশ্রয়ের দিকে ছুটে যায়। সন্ত্রাসীরা চেয়ারম্যানঘাট-টাংকী বেড়ী রোডের ৩০ ফুট, দিদার বাজার-টাংকী বাজার রোডের ১৫ ফুট, মাইন উদ্দিন বাজার-টাংকী বাজার পাকা সড়কের ১০ ফুট, মাইন উদ্দিন বাজার-ফরেস্ট সেন্টার বাজার রোডের ১০ ফুট, টিনের মসজিদ-সোলাইমান বাজার রোডের ১০ ফুট, সোলাইমান বাজার-ইসলামপুর পাকা সড়কের ১০ ফুট রাস্তা কেটে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

এসময় সন্ত্রাসীরা রাস্তাগুলোর পাশে থাকা সরকারি, বেসরকারি ও ব্যক্তিমালিকানাধীন কয়েক হাজার গাছ কেটে ফেলে।

উল্লেখ্য, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ নির্বাচন অফিসের তথ্য সংগ্রহকারী ও পুলিশের উপর হামলা করে। ১৭ অক্টোবর ২০১৫ ১নং হরণী ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর বাজারে অবস্থিত ফরেস্ট সেন্টার প্রাঃ বিদ্যালয়ে নির্বাচন অফিসের তথ্য সংগ্রহকারীদের উপর হামলা চালিয়েছে পার্শ্ববর্তী রামগতি উপজেলার উত্তেজিত জনতা।

এসময় তাদের হামলায় হরণী ইউনিয়নের প্রশাসক মুশফিকুর রহমান সহ ভোটার হতে আসা হরণী ইউনিয়নের ১০ জন আহত হন। হাতিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পঙ্কজ বড়–য়া বলেন, কর্তনকৃত গাছের সংখ্যা নিরুপন করে রিপোর্ট প্রদানের জন্য স্থানীয় বন কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মোঃ জাকের হোসেন জানান, বর্তমানে ওই এলাকায় হাতিয়া থানার পুলিশ টহলরত আছে।