মেইন ম্যেনু

হাতে পরলেই চার্জ হবে ঘড়ি

স্মার্টফোনের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে এটির ব্যবহার সহজ করতে বাজারে আসে স্মার্টওয়াচ। সময় দেখার পাশাপাশি কল আদান, বার্তা পাঠানোসহ নানা কাজের সঙ্গী এই স্মার্টওয়াচ। এত সব সুবিধার থাকার পর স্মার্টওয়াচগুলোর বড় অসুবিধা হল ব্যাটারি চার্জ ধারণ ক্ষমতা। সর্বোচ্চ ৩০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারির ব্যাকআপও একদিনের বেশি হয় না। অ্যাপল ওয়াচ গুলোর চার্জ সমস্যা ও দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপের সমস্যা সমাধানের জন্য ব্রিল্লিট্রাক নামক প্রতিষ্ঠান নিয়ে আসল প্রাইম স্ট্র্যাইপ নামের একটি ঘড়ির বেল্ট।

প্রাইম স্ট্র্যাইপ হল একটি মেটাল ওয়াচ ব্যান্ড যাতে রয়েছে ১৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারি। এর ব্যাটারিটি সহজেই বদল করা যায়। এই ব্যান্ডটি একবার চার্জ দিয়ে অ্যাপেল ওয়াচকে সর্বোচ্চ ১.৩ বার পর্যন্ত চার্জ দেয়া যাবে। ব্যান্ডের ডিসপ্লের উপরে এবং নিচে অ্যাপল ওয়াচের ব্যাটারির চার্জ দেখার সুবিধা রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিবেদন অনুসারে, এই ব্যাটারি সহ ব্যান্ডটি ৬টি গোপন পিনের সাহায্যে অ্যাপলের অরিজিনাল ব্যাটারিকে চার্জ করে। যদিও এই ব্যান্ডটি অফিসিয়ালভাবে চার্জিং কোন মাধ্যম নয়। অ্যাপল এই পোর্টটিকে ‘ডায়াগনোস্টি পোর্ট’ হিসেবেই রেখেছে। কিন্তু এই পোর্টেই চার্জ নিবে অ্যাপল ওয়াচটি ।

ওয়াচ ব্যান্ডটির সাথে একটি ছোট গোলাকার পাওয়ার ব্যাংকও রয়েছে। যেখানে ব্যাটারিটি ব্যান্ড থেকে খুলে চার্জ দেয়া যাবে। আবার পোর্টের মাধ্যমে মোবাইলকেও সরাসরি চার্জ করা যাবে। অ্যাপল ওয়াচটি ঘড়ির বেল্টের ডায়ালে স্থাপন করে সহজে স্ক্রু দিয়ে সেট করে দেয়া যায়। তারপর থেকেই অ্যাপল ঘড়ির চার্জ নিয়ে চিন্তা আর আপনার নেই।

পাওয়ার ব্যাংক ও ব্যাটারি সহ ঘড়ি বেল্টের মূল্য ২৩৯ ডলার। ভ্যাট ও ট্যাক্স ছাড়া বাংলাদেশি টাকায় ১৮ হাজার টাকা।