মেইন ম্যেনু

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে জীবন যাবার উপ্রক্রম

মাগুরা প্রতিনিধিঃ ছাদের ফাটল ধরা অংশ থেকে খোয়াবালি খসে পড়ে মঙ্গলবার সকালে মাগুরা সদর হাসপাতালে ১ রোগী ও তার মা আহত হয়েছে।

তারা হচ্ছেন – মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার দোসতিনা গ্রামের সাব্বির হোসেন মোল্যা (২৮) ও তার মা সাবিনা ইয়াসমিন(৫০)। তারা ওই গ্রামের আকতার হোসেন মোল্যার স্ত্রী ও ছেলে।

সাবিনা ইয়াসমিন জানান- ১৭ তারিখ তার ছেলে সাব্বিরকে স্থানীয় কিছু বখাটে মারপিট করায় তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় বেডে সিট না পেয়ে হাসপাতালের বারান্দায় তাদেরকে সিট দেয়া হয়। আজ সকাল ৭টার দিকে হঠাৎ করে তাদের মাথার উপর ছাদের একটি অংশ থেকে খোয়া বালিসহ একটি বড় চাঁড় ভেঙ্গে পড়ে। এতে তিনি ও তার ছেলে আহত হন। সাব্বিরের মাথায় ৪টি সেলাই দিতে হয়েছে।

hosp

এদিকে ছাদের খসে যাওয়া অংশের আসে পাশেও বেশ কিছু জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে। যার জন্য অন্যান্য রোগীদের মধ্যেও আতংক সৃষ্টি হয়েছে। বেশ কয়েকজন চিকিৎসা না নিয়েই হাসপাতাল ত্যাগ করছে বলে রোগীরা জানান।

মাগুরা সদর হাসপাতালের ইমার্জেন্সী মেডিকেল অফিসার ডা. পরীক্ষিত পাল জানান- সাব্বির ও তার মাকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তপক্ষকে জানানো হয়েছে।