মেইন ম্যেনু

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলা

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় বিদেশী গাভীর শিং এর আঘাতে এক ব্যক্তি আহত হয়। জানা যায়, ২ অক্টোবর (শুক্রবার) সন্ধ্যায় উপজেলার পদমপুর ওমরাডাঙ্গী গ্রামের নওশাদ আলী নামক এক ব্যক্তি একটি বিদেশি গাভীর সামনে দিয়ে হেটে গেলে তাকে ধাওয়া করলে মাটিতে পড়ে যান, এসময় উক্ত গাভীটি তাকে শিং দিয়ে ডান পায়ের রানে প্রচন্ড আঘাত করে । পরে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় গ্রামের লোকজন ভ্যান যোগে রাণীশংকৈল হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসে। এসময় ডিউটিরত ডাক্তার প্রাথমিক চিকিৎসা না দিয়েই দিনাজপুর হাসপাতালে রেফাড করে।

গরীব অসহায় আহত ব্যক্তিটির দিনাজপুর যাওয়ার কোন সম্বল না থাকায় শিবদিঘী যাত্রী ছাউনি এলাকায় স্থানীয় প্রাইভেট ক্লিনিকে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

রুগীর লোকজন জানান, জরুরী বিভাগে এমবিবিএস কোন ডাক্তার পাওয়া যায়নি । এসময় আর এম ও ডা: ফিরোজ আলম প্রাইভেট চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। তিনি রুগীকে চিকিৎসা না দিয়ে রুগীর লোকজন কে বলেন হাসপাতালে সার্জারী ডাক্তার নেই। আপনারা দিনাজপুর হাসপতালে নিয়ে যান বলে ডাক্তার তার দায়িত্বের অবহেলা করেন । এভাবে গ্রামের অসহায় মানুষের র্দীঘ নি:শ্বাসের দাম দিবে কে?