মেইন ম্যেনু

হিলারির পক্ষে গুগল?

বিশ্বের অন্যতম প্রধান সার্চ ইঞ্জিন গুগল এবারের মার্কিন নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে হিলারি ক্লিটনকে সমর্থন করছে। এমনই গুরুতর পক্ষপাতের অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। গুগল হিলারি সম্পর্কে কোনো নেতিবাচক ফলাফলই দেখাচ্ছে না।

সেখানে সার্চ দিলেও এর কিছুটা প্রমাণ মিলছে। গুগলে হিলারি সম্পর্কে সার্চ দিলে শুধু ইতিবাচক ফলাফলই পাওয়া যাচ্ছে! অথচ ওই একই ফলাফলের জন্য অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন ইতিবাচক এবং নেতিবাচক দু’ধরনের ফলাফলই দেখা যাচ্ছে।

সম্প্রতি সোর্স ফিডের এক ভিডিওতে বলা হয়েছে, গুগলের কর্তা ব্যক্তিদের সঙ্গে হিলারির কোনো যোগসূত্র রয়েছে। আর এ কারণে তাতে হিলারির সম্পর্কে সার্চ দেয়া হলে তার অনুকূলে থেকেই বিভিন্ন ফলাফল দেখানো হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দল থেকে মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন দেশটির সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও ফার্স্ট লেডি হিলারি ক্লিনটন। আর তার পক্ষ নিয়ে কাজ করছে গুগল। অভিযোগ উঠেছে ইচ্ছাকৃতভাবেই হিলারির পক্ষে থেকে সার্চিংয়ের ফলাফল দেখাচ্ছে গুগল।

Hilari1436942961

গুগলে হিলারির সম্পর্কে কোনো ধরনের নেতিবাচক তথ্য দেখা যাবে না এমনটা হবার কথা নয়। যেমন ইয়াহু বা বিংয়ে হিলারি সম্পর্কে সার্চ দিলে হিলারি ক্লিনটনের অপরাধ অভিযোগ, হিলারি ক্লিনটনের অপরাধ ও হিলারি ক্লিনটন অপরাধী এসব নেতিবাচক ফলাফল দেখায়।

অথচ গুগলে সার্চ দিলে পাওয়া যায় হিলারি ক্লিনটনের অপরাধ সংস্করণ, হিলারি ক্লিনটনের অপরাধ সংস্করণ ১৯৯৪ এবং হিলারি ক্লিনটনের সঙ্কটকাল ইত্যাদি তথ্য।

এদিকে গুগলের বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে প্রতিষ্ঠানটি। গুগলের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, হিলারির পক্ষ থেকে তারা কোনো ফলাফল তৈরি করেননি। শুধু তাই নয় তাদের দাবি তারা অন্য কোনো প্রার্থীকেও সাহায্য করার জন্য নিজেদের সার্চ ইঞ্জিনে পরিবর্তন আনেননি।

ইউটিউবে সোর্স ফিড নামে একটি প্রতিষ্ঠান এক ভিডিও বার্তায় গুগলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার পরই এক বিবৃতিতে গুগল তাদের বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

যদিও সোর্স ফিডের দাবি হিলারি সম্পর্কে নেতিবাচক তথ্য লুকিয়ে রেখেছে গুগল। তারা হিলারিকে সমর্থন করছে। তার সম্পর্কে ইতিবাচক ফলাফলগুলোই কেবল সার্চিং অপশনে রেখেছে।