মেইন ম্যেনু

হিলারির বিরুদ্ধে মামলা

২০১২ সালে লিবিয়ার বেনগাজিতে মার্কিন দূতাবাসে হামলার ঘটনায় শন স্মিথ ও টায়রন উডস নামের দুই সেনা নিহত হন। সেসময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন হিলারি ক্লিনটন। তাদের মৃত্যুর জন্য হিলারিকে দায়ী করে মামলা করেছেন ওই দুই সেনার পরিবার।

তারা বলছেন, হিলারি ক্লিনটন সেসময় তার ব্যক্তিগত ইমেইল ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য আদান প্রদান করেছেন।

স্মিথ ও উডসের পরিবার মনে করছে অনিরাপদ ব্যক্তিগত ইমেইল বার্তা থেকে সেসময় মার্কিন কর্মকর্তাদের অবস্থান হয়ত ফাঁস হয়ে গিয়েছিলো।

দুই পরিবারের পক্ষে মামলাটি করেছে ফ্রিডম ওয়াচ গ্রুপ নামে একটি রক্ষণশীল গোষ্ঠী।

বেনগাজির ওই হামলা সম্পর্কে হিলারি ক্লিনটন মানহানিকর মন্তব্য করেছেন বলেও মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে গত মাসেই মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এর পরিচালক জেমস কমি ঘোষণা করেছিলেন যে, হিলারির ব্যক্তিগত ইমেইল হ্যাক হয়ে থাকতে পারে।

জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট মার্কিন দূতাবাসে ওই হামলা চালিয়েছিল। হামলায় সে সময়কার মার্কিন রাষ্ট্রদূত ক্রিস্টোফার স্টিভেন্স নিহত হন। তার বোন এ্যান স্টিভেন্স অবশ্য নিউইয়র্ক টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে হিলারি ক্লিনটনের পক্ষে কথা বলেছেন।

হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী ক্যাম্পেইন টিম তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।



« (পূর্বের সংবাদ)