মেইন ম্যেনু

হিলারি-ওবামাই আইএস তৈরি করেছেন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনই জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএস তৈরি করেছেন। ওবামার প্রশাসনিক নীতির কারণেই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর উত্থান হয়েছে।

২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প শনিবার এক বিবৃতিতে এমন দাবি করেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা সিএনএন।

তবে মিসিসিপিতে দেয়া ওই বক্তব্যের ওপর তেমন কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি ট্রাম্প। সেখানে তিনি আরো বলেছেন, ‘ইরান এবং সৌদি আরবের মধ্যে যে অস্থিরতা কাজ করছে তাতে এই বিষয়টিকেই ইঙ্গিত করে যে, ইসলামিক প্রজাতন্ত্র দীর্ঘদিনের মার্কিন জোটকে মধ্যপ্রাচ্যে নিয়ে নিতে চায়।’

ট্রাম্প আরো বলেন, ‘হিলারি ক্লিনটন ওবামার সঙ্গে মিলে আইএসআইএসকে তৈরি করেছেন।’

এদেক সৌদিতে শিয়া নেতা নিমর আল নিমরসহ ৪৭ জনের শিরশ্ছেদ করা হয়েছে বলে শনিবার জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। ওই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ইরানের রাজধানী তেহরানে অবস্থিত সৌদি দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ করেছে একদল বিক্ষুব্ধ জনতা। ওই ঘটনা সম্পর্কে নিজের আলোচনায় ট্রাম্প বলেন, ‘তেহরানে সৌদি দূতাবাসে আগুন লাগিয়েছে তারা, আপনারা কি সেটা দেখেছেন? এখন তাহলে এটাই হবে যে ইরান সৌদি আরবের ওপর নিয়ন্ত্রণ নিতে চাইবে। তাদের এমন চিন্তা সবসময়ই আছে। তারা তেল চায়। তারা সবসময় এটাই চায়।’

তবে মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার বিষয়গুলো তুলে ধরতে গিয়ে দেশটির ৪৩তম সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশকে সমালোচনা থেকে রেহায় দেননি ট্রাম্প। কেননা ২০০৩ সালে ইরাকে আক্রমণ চালিয়েছিল বুশ। চলতি সপ্তাহগুলোতে তিনি নির্বাচনের প্রচারণাকে কেন্দ্র করে হিলারি এবং তার স্বামী সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনেরও যথেষ্ট সমালোচনা করেছেন। সেসময় তিনি নারীদের সঙ্গে ক্লিনটনের অবৈধ সম্পর্কের বিষয় তুলে ধরেও কটু মন্তব্য করেছেন।

তবে ট্রাম্পের এই বিবৃতির আগে নভেম্বরেই আইএসআইএসের উত্থানের পেছনে ওবামা এবং ক্লিনটনকে দায়ী করেছিলেন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী দুই প্রতিযোগী কার্লি ফিওরিনা এবং রিক সান্তোরামও।



« (পূর্বের সংবাদ)