মেইন ম্যেনু

হুটহাট কতকিছু চোখে লেগে যায় কিন্তু কেনার আগে নিজেকে করুন এই পাঁচটি প্রশ্ন

দৈনন্দিন জীবনের কতকিছুই তো কিনতে হয় প্রতিদিন। তার কিছু প্রয়োজনীয়, আবার কিছু থাকে অপ্রয়োজনীয়। সত্যিই তো! বাজারে কিছু কিনতে গেলে কি আর ঠিকঠাক ওটাই কেনা হয়? হুটহাট কতকিছু চোখে লেগে যায় বা মনে ধরে যায়।

শেষমেশ বেশিরভাগ সময়ই পছন্দের জিনিসটাকে কিনে এনে তবেই না পাওয়া যায় স্বস্তি! কিন্তু একবার ভেবে দেখুন তো, প্রতিমাসে আপনার ঘর-সংসারের বরাদ্দ টাকার বাইরে কি আপনাকে নিয়ে যাচ্ছে হঠাৎ করে কিনে ফেলা অপ্রয়োজনীয় সেই জিনিসগুলো? মাসের শেষে হাতে টাকা আর থাকছেই না? তাহলে একটু থামুন। কিছু কেনার আগে দুটো মিনিট থেমে নিজেকে করুন এই প্রশ্নগুলো।

১. সত্যিই কি এটা আমার খুব দরকার?

হয়তো ভাবছেন সস্তায় পাওয়া যাচ্ছে যখন তখন কিনতে কী সমস্যা? কিন্তু ভালো করে খানিকটা ভাবলেই বুঝতে পারবেন সমস্যা এই একটা জিনিসের মাধ্যমে তৈরি হচ্ছে না। এর পেছনে রয়েছে এভাবেই আপনার বাসায় থাকা একই কাজের অন্য একটা জিনিসের উপস্থিতি সত্ত্বেও সেটারই আরেকটি কিনে নেওয়া। তাও হাতের টাকার কথা না ভেবে। আর তাই কিছু কেনার আগে ভাবুন সেটা আপনার বাসায় আছে কিনা। যদি থাকে তাহলে যত সস্তাই হোকনা কেন পণ্যটি থেকে সরে আসুন।

২. আরো কম দামে কি এটা কেনা যায়?

অনেকেই বাসা থেকে কাছে হবার কারণে বা অন্য কোন অজুহাতে ঘেঁটে দেখতে চাননা চারপাশটাকে। ফলে একই দ্রব্য রাস্তার পাশে যেখানে মাত্র ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, এসি রুমের ভেতরে ঢুকে গায়ে একটা ট্যাগ লাগিয়েই সেটা ২০০০ টাকা বা তার বেশি মূল্যের হয়ে যায়। আর তাই নিজেকে প্রশ্ন করুন সত্যিই দামটা আপনার পণ্যের উপযোগী কিনা। এটা সত্যি যে শখের তোলা আশি টাকা। কিন্তু তাই বলে শখের মূল্য দিতে গিয়ে যেন আপনাকে বোকা বনতে না হয় সেটাও খেয়াল রাখুন।

৩. এটা কেনার সামর্থ্য কি আমার আছে এখন?

অনেকেই পছন্দের জিনিসটা কিনতে হাতের শেষ পাই পয়সাটাও খরচ করে ফেলেন। শুধু তাই নয়, ধার নিয়ে ফেলেন অন্যের কাছ থেকেও। পরবর্তীতে যেটার দাম খুব ভারীভাবে চোকাতে হয়। তাই কোন জিনিস কেনার আগে নিজের কাছে জানতে চান যে সেটা কেনার সামর্থ্য আপনার এখন রয়েছে কিনা। নাহলে ওটার চিন্তা বাদ দিন। কারন, খালি পেটে কোনকিছুই ভালো লাগে না। তা সেটা যত ভালোই হোকনা কেন।

৪. আবেগের বশে কিনছি না তো এটা?

দোকানে হয়তো গিয়েছেন প্রয়োজনীয় কিছু একটা কিনতে। হঠাৎ চোখে পড়ে গেল খুব সুন্দর একটা পোশাক। প্রয়োজনীয় জিনিসটার কথা ভেবে তখন আপনি কিনে বসলেন ঐ হঠাৎ পছন্দ হওয়া জিনিসটা। আর প্রয়োজনীয় জিনিসটা? ওটা তো পরেও কেনা যাবে। ভাবলেন আপনি। কিন্তু এরকমটা করবার আগে নিজেকে একবার প্রশ্ন করুন তো, আপনি ঠিক কি কারণে পণ্যটি কিনছেন? হঠাৎ ভালোলাগায় পড়ে? তাহলে ওটার কথা বাদ দিন। কারন খানিক আবেগ খানিক সময়ের জন্যেই থাকে। একটু পরে হয়তো নিজেই নিজের কপাল চাপড়াবেন আপনি।

৫.এটা কি বিনামূল্যে পাওয়া যায়?

অনেক সময়ই দুটো জিনিস কিনলে একটি বিনামূল্যে পাওয়ার অফার থাকে। মোবাইলের সিম থেকে শুরু করে যে কোন পণ্যের ক্ষেত্রেই এমনটা হয়ে থাকে। আর তাই কিছু কেনার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন ঐ জিনিসটা কোথাও বিনামূল্যে দিচ্ছে নাতো!