মেইন ম্যেনু

হেরে গেলেন মমতাজের সাবেক স্বামী

মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর কাছে হেরে গেলেন স্বনামধন্য গায়িকা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের দ্বিতীয় স্বামী রমজান আলী। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম মহিউদ্দিনের কাছে ১০৮ ভোটে পরাজিত হন তিনি। গেলো পৌরসভা নির্বাচনেও মেয়র পদে নির্বাচন করে হেরেছিলেন রমজান।

কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই বুধবার সকাল ৯টা থেকে জেলার সাতটি উপজেলার ১৫টি কেন্দ্রে একযোগে ভোট শুরু হয়ে দুপুর ২টায় শেষ হয়। তবে সাত উপজেলার ১৫টি কেন্দ্রেই সকালের দিকে কোনো ভোটার ছিল না। সাটুরিয়া ও ঘিওর উপজেলার বানিয়াজুড়ী কেন্দ্রে ৩ ঘণ্টার মধ্যেও কোনো ভোট পড়েনি। কিন্তু দুপর ১২টার পর থেকে সব কেন্দ্রেই বাড়তে থাকে ভোটার।

মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে লড়েন পাঁচ প্রার্থী। এদের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও দলের সমর্থিত প্রার্থী গোলাম মহীউদ্দিন ‘আনারস’, মানিকগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি বিদ্রোহী প্রার্থী রমজান আলী ‘মোবাইলফোন’ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সাংসদ মফিজুল ইসলাম খান ‘প্রজাপতি’, বজলুল হক খান ‘কাপ-পিরিচ’ ও কাজী রফিকুল ইসলাম ‘তালগাছ’ প্রতীকে নির্বাচন করেন।

এছাড়া ১৫টি ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৫৪ জন এবং পাঁচটি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত (নারী) সদস্যপদে ১৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।