মেইন ম্যেনু

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের কারণ এখনো অজানা

কক্সবাজারের উখিয়ার সাগরপাড়ে হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের কারণ এখনো জানা যায়নি। ঘটনার পর দুই দিন অতিবাহিত হলেও এখনো দুর্ঘটনার কারণ উৎঘাটন করতে পারেনি তদন্ত কমিটি।

জানা গেছে, ঘটনার পর বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) মেম্বার অপারেশন এয়ার কমোডর মোস্তাফিজুর রহমানকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। বেবিচকের পরামর্শক গ্রুপ ক্যাপ্টেন জাফর আহমদকেও রাখা হয়েছে ওই কমিটিতে। সেই কমিটি এখনো দুর্ঘটনার কারণ উৎঘাটন করতে পারেনি।

জানতে চাইলে তদন্ত কমিটির প্রধান এয়ার কমোডর মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশে কম বেশী বিমান দুর্ঘটনার কথা আমরা জানি। আর হেলিকপ্টার দূর্ঘটনার সংখ্যা খুবই কম। দূর্ঘটনার কারণ জানতে একটু অপেক্ষা করতে হবে। তদন্তের আগে কোন মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

তদন্ত কমিটির সদস্য বেবিচকের কনসালটেন্ট গ্রুপ ক্যাপ্টেন জাফর আহমদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কিছুটা ধারনা পেয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে কিছু অডিও রেকর্ডের সামগ্রী একটি ব্যাগ, বই ও কিছু কাগজপত্র উদ্ধার করে বেবিচক হেডকোয়ার্টারে নিয়ে আসেন তিনি।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পর হেলিকপ্টারটি পানিতে পড়ায় সব আলামত সংগ্রহ করা যায়নি। যতটুকু সম্ভব সংগ্রহ করা হয়েছে।

এদিকে মেঘনা গ্রুপের রক্ষাণাবেক্ষণ কর্মকর্তা ইঞ্জিনিয়ার মো. নজরুল ইসলাম জানান, হেলিকপ্টারটি ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে ইন্স্যুরেন্স করা আছে। ওই কোম্পানির পক্ষ থেকে কোন প্রতিনিধিদল এখনো ঘটনাস্থলে যাননি। তাই রোববার অবদি সরানো হয়নি হেলিকপ্টারটি।

উল্লেখ্য, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে ইনানী বিচে নামিয়ে দিয়েই ফেরার পথে কক্সবাজারের উখিয়ার রেজু খালের মোহনায় হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। এতে একজন নিহত ও পাইলটসহ আরো ৪জন আহত হয়।