মেইন ম্যেনু

আকস্মিক পরিদর্শনে ইউএনও সেলিম রেজার ক্ষোভ প্রকাশ

হ-য-ব-র-ল ঝিনাইগাতী হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা

মুহাম্মদ আবু হেলাল, ঝিনাইগাতী (শেরপুর) : বর্তমান সরকার যেখানে স্বাস্থ্য সেবা জনগণের ঘরে ঘরে পৌছে দেওয়ার ব্রত নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে ঠিক এমন সময়ে হ-য-ব-র-ল ভাবে নিভূ নিভূ প্রদীপের মতো চলছে শেরপুরের ঝিনাইগাতী হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা। যে কারনে ২২মে রবিবার দুপুরে আকস্মিক ভাবে পরিদর্শনে হাসপাতালে এসে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সেলিম রেজা সার্বিক অবস্থা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। ঝিনাইগাতী হাসপাতালে ১৪জন মেডিকেল অফিসার থাকার কথা। এর মধ্যে কাগজে কলমে আছে ৭জন। এই ৭জনের মধ্যে ইউএনও সেলিম রেজা হাসপাতালে গিয়ে কর্তব্যরত দেখতে পান ২জন মেডিকেল অফিসার। একজন হলেন, আসাদুজ্জামান সজীব অন্যজন আরএমও ডাঃ এএসএম মফিদুল ইসলাম। স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাইফুল ইসলাম জয় গত ১৭মে বুধবার থেকে কর্মস্থলে অনুপস্থিত আছেন। তিনি ছুটিতে আছেন নাকি অন্য কোন কারনে কর্মস্থলে অনুপস্থিত এ বিষয়ে কোন তথ্য কেউ বলতে পারছেনা। কথিত আছে, তিনি মাঝে মধ্যেই কয়েক দিনের জন্য নিরুদ্দেশ হয়ে যান। এছাড়া বাকী ৫জন মেডিকেল অফিসারের একই দিনে অনুপস্থিতিরও কোন ব্যাখ্যা কেহ দিতে পারেনাই। গত ডিমেস্বর ২তারিখের পূর্বের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাদেক মিয়া চলে যাওয়ার পর এবং বর্তমান কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জয় ঝিনাইগাতী হাসপাতালে যোগদানের পর থেকে হাসপাতালের পুরো স্বাস্থ্য সেবাই ভেঙ্গে পড়েছে। দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত মেডিকেল অফিসারগণ তাদের ইচ্ছে মতো হাসপাতালে আসেন আর চলে যান, বলার যেন কেউ নেই। যেটুকু সেবা রোগীরা পাচ্ছে তা দিচ্ছে আরএমও ডাঃ এএসএম মফিদুল ইসলামসহ ২/১জন মেডিকেল অফিসার আর স্বাস্থ্য সহকারীরা। এক্সরে মেশিনটি ভাল থাকলেও বিদ্যুতের কম ভোল্টেজের অযুহাত দেখিয়ে মাসের পর মাস এক্সরে মেশিনটি বন্ধ রেখে মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট(রেডিও গ্রাফার) আব্দুল জলিল কর্তব্য কাজে না এসেও অফিস সহকারী আব্দুল বাতেন ও স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সাইফুল ইসলাম জয়কে ম্যানেজ করে বাড়ীতে অবস্থান করেও সরকারী বেতন ভোগ করছেন আব্দুল জলিল। এর ফলে উপজেলার হত-দরিদ্র রোগীরা ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হলেও কর্তৃপক্ষের কোন মাথা ব্যথা নেই। অথচ বর্তমান সরকার জনগণের শতভাগ স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার ভিশন নিয়ে কাজ করছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সেলিম রেজা আকস্মিক পরিদর্শনে হাসপাতালে এসে সার্বিক অবস্থা দেখে হতাশা ব্যক্ত করেন এবং তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে উপস্থিত রোগী ও মিডিয়া কর্মিদের জানান। ১৭মে বুধবার থেকে ঝিনাইগাতী স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ডাঃ সাইফুল ইসলাম জয় কর্মস্থলে কিভাবে অনুপস্থিত আছেন ? এ ব্যাপারে জেলা সিভিল সার্জন মোঃ আনোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান,“আমি নিজেও ছুটিতে আছি, তিনি কোন ছুটির আবেদন করেছেন কিনা আমার জানা নেই, তবে আমি অফিসে গেলে বিষয়টি বলতে পারব”।