মেইন ম্যেনু

১০০ সন্তান জন্মদানের লক্ষ্যে চতুর্থ স্ত্রীর সন্ধানে…

পাকিস্তানের ৩৫ সন্তানের এক বাবা এবার চতুর্থ স্ত্রীর সন্ধানে নেমেছেন। কারণ ১০০ সন্তান জন্মদান তার লক্ষ্য। রক্ষণশীল পাকিস্তানে বহুবিবাহ বিরল হলেও কিছুটা এখনো রয়ে গেছে। পেশায় মেডিকেল টেকনিশিয়ান সরদার হাজি জান মোহাম্মদ খিলজির (৪৬) ভাষ্য, তার বর্তমান তিন স্ত্রীই তার ১০০ সন্তানের বাসনা পূরণে সমর্থন দিচ্ছেন। তার তিন স্ত্রী মিলেমিশে বাস করছেন বলে জানান তিনি।

জান মোহাম্মদের দাবি, দৈনিক খাঁটি দুধ ও তাজা শাকসবজি ও মাংস খেয়ে তিনি সন্তান জন্মদানের এই বিরল ক্ষমতা ধরে রেখেছেন। তিনি দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করেন এবং পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন। তার জ্যেষ্ঠ সন্তানের বয়স ১৫ বছর আর সর্বকনিষ্ঠ সন্তানটি জন্ম নিয়েছেন কয়েক সপ্তাহ আগে।

মজার ব্যাপার হচ্ছে বিগত মার্চের শুরুতেও তিনি ছিলেন মাত্র ৩৩ সন্তানের বাবা। এরপর ওই মাসেই মাত্র ছয়দিনের ব্যবধানে তার ঘর আলো করে আসে দুটো কন্যা সন্তান। তার মা-বাবাই তার জন্য স্ত্রী দেখে থাকেন।

‘প্রথম আমি যখন বিয়ে করি তখন আমার বয়স ছিল ২৬ বছর। এর পরের বছর মাত্র পাঁচ মাসের ব্যবধানে আমার ঘরে আসেন আরো দুই বিবি,’ বলছিলেন জান মোহাম্মদ।

তিনি জানান, এখন হয়তো ফেসবুকের মাধ্যমেই তিনি পরের বিয়ের কাজটা সারতে পারবেন। কারণ পাকিস্তানের গণমাধ্যমে তার খবর প্রকাশিত হলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তিনি বিয়ের প্রস্তাব পেতে শুরু করেছেন।