মেইন ম্যেনু

১০ হাজার টন খেজুর রপ্তানি করবে সৌদি

রপ্তানি আয় বাড়াতে খেজুরের ওপর গুরুত্ব বাড়িয়েছে সৌদি আরব। এরই মধ্যে আল-আহসা এলকার ১০ হাজার টন আসল জাতের খেজুর রপ্তানিযোগ্য করা হয়েছে। ওই অঞ্চলের চাষিদের খেজুর উৎপাদনের উৎসাহ দিচ্ছে দেশটির সরকার।

আল-আহসার কিংডম আবদুল্লাহ সিটি অব ডেটস (কেএসিডি) প্রকল্পের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইসমাইল বলেন, আল-আহসার খেজুরের চাহিদা ভালো। তাই এ অঞ্চলের খেজুরের উৎপাদন বাড়াতে সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। এই অঞ্চলের খেজুর যেসব চাষি উৎপাদন করেন এবং যেসব ব্যবসায়ী রপ্তানি করেন তাঁদের সহায়তা দিতে আসল জাতের খেজুরের সনদ দেওয়া হবে।

ইসমাইল বলেন, আঞ্চলিক খেজুর রপ্তানি বাড়ানোর ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখবে স্থানীয় প্রশাসন। খেজুর রপ্তানিযোগ্য করে তুলতে ল্যাবে কাজ করা হবে। মান ঠিক আছে কি না, তা যাচাই করা হবে। এ ক্ষেত্রে সনদ দেওয়া হবে।

ইসমাইল বলেন, মান ঠিক রাখতে আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা স্থানীয় ওই সব ল্যাবে কাজ করবে।

আগামী ১৮ মাসে ৩৫০টি গুদাম খোলা হবে বলে জানিয়েছেন আল-আহসার মেয়র আদেল আল-মুলহিম। তিনি বলেন, কেএসিডি খেজুরের বাজার ব্যবস্থাপনায় ব্যবসায়ীদের সাহায্য করবে।