মেইন ম্যেনু

১০ হাজার রান করা কঠিন : তামিম

হাবিবুল বাশারকে টপকে তামিম ইকবাল এখন টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ৩০২৬ রান নিয়ে হাবিবুল বাশার অবসর নিয়েছেন ২০০৭ সালে। দীর্ঘ আট বছর ধরে হাবিবুল বাশারের রেকর্ড অক্ষত ছিল। শনিবার তামিম সেই রেকর্ড ভাঙেন। ৩০৩৯ রান নিয়ে এখন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবার ওপরে তামিম। নিজের রেকর্ড ভাঙার সময় ফতুল্লা স্টেডিয়ামে ছিলেন হাবিবুল বাশার।

মধ্যাহ্ন বিরতির সময় ড্রেসিং রুমে তামিমকে শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন হাবিবুল বাশার।

তামিম ইকবাল টেস্টে ১০ হাজার রান করবেন এমন প্রতাশাও ব্যক্ত করেছেন জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক হাবিবুল বাশার। তামিমের পক্ষে এটা করা সম্ভব বলেও বিশ্বাস করেন তিনি।

তবে তামিম জানিয়েছেন, তার জন্যে ১০ হাজার রান করাটা কঠিন। এ বিষয়ে তামিমের ব্যাখ্যা,‘এটা করা কঠিন। কারণ আমরা গড়ে প্রতি বছর তিন-চারটি টেস্ট ম্যাচ খেলি। সামনের দশ বছরে হয়তো আরো ৪০টি টেস্ট ম্যাচ খেলব। যদি বছরে সাত-আটটি টেস্ট ম্যাচ খেলা যায়, তাহলে দশ হাজার রান করা সম্ভব! তাছাড়া আমার ফর্ম ও ফিটনেসের ওপরও বিষয়টি নির্ভর করবে। যেভাবে এখন আমরা টেস্ট খেলছি, সেভাবে খেললে ১০ হাজার রান করা কঠিন।’

তবে ১০ হাজার রানের মাইলফক স্পর্শ করার স্বপ্ন রয়েছে তামিমের। এ নিয়ে তামিমের ভাষ্য,‘১০ হাজার রান যেকোনো ব্যাটনম্যানের স্বপ্ন। ৮-৯ বছরে আমি ৪০টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছি। অন্য দেশে হিসেব করলে ওরা হয়তো ৪-৫ বছরে ৪০টা টেস্ট ম্যাচ খেলে। এভাবে যদি ৩-৪ টেস্ট ম্যাচ খেলি তাহলে কঠিন হয়ে যাবে। আমার গড় যদি ৫০ করেও রাখি তাও কিন্তু ১০ হাজার রান করা সম্ভব হবে না। যদি অর্জন করতে পারি এটা আমার জন্য হবে সবচেয়ে বড় অর্জন এবং বাংলাদেশের জন্যও।’

এদিকে ভারতে গিয়ে টেস্ট খেলার আগ্রহের কথাও জানান তামিম। ভারতীয় এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তামিম জানান, ভারতে খেলতে আগ্রহী বাংলাদেশ। সিদ্ধান্তটা বোর্ডের হাতে নেই।’

বাংলাদেশের ভারত সফরের জন্যে বিসিসিআই ও আইসিসিকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানিয়েছেন তামিম।