মেইন ম্যেনু

১১ ঘণ্টায় কোরআন খতম করে রেকর্ড গড়লের ফিলিস্তিনের যুবক!

ফিলিস্তিনের রাজনৈতিক নেতা এবং কোরআনের অধ্যাপকদের উপস্থিতিতে গাজার যুবক ‘ওয়াসিম নাজাল মুহানী’ মাত্র ১১ ঘণ্টায় পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করে ৩০ পারা খতম করে রেকর্ড গড়েছেন!

পবিত্র কোরআনের হাফেজ ওয়াসিম নাজাল মুহানী কয়েক দিন পূর্বে গাজার দারুল কোরআন ও ইস্ট সেন্ট কেন্দ্র থেকে কোরআন হেফজ করেছেন। বিশ্বের মধ্যে তিনি প্রথমবার মাত্র ১১ ঘণ্টায় কোরআন খতম করে রেকর্ড করেছেন।

পূর্ব গাজা উপত্যকার পূর্বাঞ্চলীয় সুজায়িয়া এলাকার ‘আদ্দার আক্তানী’ মসজিদে গত শুক্রবার (১৫ই জুলাই) ওয়াসিম নাজাল ফজরের নামাজের পর কোরআন তিলাওয়াত শুরু করেন এবং আসরের নামাজে পর্যন্ত টানা ১১ ঘণ্টা কোরআন তিলাওয়াত করে সম্পূর্ণ কোরআন খতম করেনে।

কোরআন খতম করার অনুষ্ঠানে ফিলিস্তিনি আইন পরিষদের প্রতিনিধি ‘রুহি মুস্তাহী’, হামাস আন্দোলনের পলিট ব্যুরোর সদস্য ‘হানি আসলিম’, গাজার দারুল কোরআন ও ইস্ট সেন্ট কেন্দ্রর প্রধান সহ গাজার দারুল কোরআন এসোসিয়েশন প্রশাসনিক কাউন্সিলের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গাজার দারুল কোরআন ও ইস্ট সেন্ট কেন্দ্রর প্রধান ‘হাযিম আল-শেখ খলিল’ এ ব্যাপারে বলেন, কোরআন খতমের এই বৈঠকের পূর্বে বেশ কয়েকটি প্রাথমিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতি বৈঠকে ওয়াসিম নাজাল বেশ কয়েক পারা তিলাওয়াত করেছেন এবং অবশেষে চূড়ান্ত বৈঠকে ১১ ঘণ্টায় সম্পূর্ণ কোরআন তিলাওয়াত করে খতম করেছেন।-ইকনা