মেইন ম্যেনু

১২ কোটি টাকার মালিক এক ভিক্ষুক!

কুয়েত পুলিশ সম্প্রতি ভিক্ষা করার অপরাধে এক বিদেশিকে আটক করেছে। পরে তদন্ত করে দেখা যায়, ওই ফকির ৫ লাখ কুয়েতি দিনারের (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১২ কোটি ৭৯ লাখ ৭২ হাজার টাকা) মালিক। স্থানীয় এক পত্রিকার বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে খালিজ টাইম।

ঘটনার দিন ওই দেশের রাজধানী কুয়েত সিটির এক মসজিদের পাশে বসে ভিক্ষা করছিল ওই ভিক্ষুকটি। এসময় ভিক্ষা করার অপরাধে সেখানকার টহলরত পুলিশ তাকে আটক করে। তার ওপর তদন্ত চালানোর পর দেখা যায়, স্থানীয় ব্যাংকে ওই ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে ১২ কোটির বেশি টাকা জমা রয়েছে।

ভিক্ষুককুয়েত ছাড়াও অন্যান্য উপসাগরীয় দেশ যেমন বাহরাইন, ওমান, কাতার, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরবে ভিক্ষা করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। রমজানে দেশগুলোতে ভিক্ষাবৃত্তি ঠেকাতে কঠোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় প্রশাসনগুলো। গত এপ্রিল মাসেও দেশি-বিদেশি ২২ ভিক্ষুককে আটক করেছিল কুয়েত পুলিশ।

পত্রিকায় প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, উপসাগরীয় দেশগুলোতে অবস্থানকারী বিদেশিরা ভিক্ষাকে একটি লাভজনক রোজগার হিসেবে মনে করে থাকেন। তাই অনেক অবস্থাপন্ন লোকই কাজকর্ম বাদ দিয়ে কেবল ভিক্ষা করে থাকেন।

এ সম্পর্কে সৌদি আরবের সামাজিক কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সে দেশের ভিক্ষুকদের ৮৫ ভাগই বিদেশি।