মেইন ম্যেনু

১৩ জামায়াত নেতাকর্মীর ৩ দিনের রিমান্ড

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নেতা ও সাবেক দুই সংসদ সদস্যসহ আটক ১৩ জনের বিরুদ্ধে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। পল্লবী থানায় বিস্ফোরক আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক মো. মাহফুজুর রহমান মঙ্গলবার দুপুরে তাদের মুখ্য মহানগর হাকিম লুৎফর রহমান শিশিরের আদালতে হাজির করেন। আদালত শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জামায়াতের ১৩ নেতাকর্মী হলেন— খুলনা ৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মিয়া গোলাম পরোয়ার, রাজশাহীর ১ আসনের সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান, কাফরুল থানা জামায়াত সভাপতি তসলিম আলম, আবুল কালাম আজাদ, মো. মুনসুর রহমান, মো. জাকির হোসেন, মো. জাহাঙ্গীর আলম, এ বি এম নুরুউল্লাহ (মোহাম্মদউল্লাহ), মো. আবুল হাশেম, মো. সাব্বির, মজিবুর রহমান, হারুনুর রশিদ ও মো. আশরাফুল আলম ইকবাল।

গোয়েন্দা পুলিশের অভিযোগ, ঈদুল আজহার সময় গার্মেন্ট শ্রমিকদের বেতর-ভাতা নিয়ে অসন্তোষ সৃষ্টি এবং তা কাজে লাগিয়ে নাশকতার পরিকল্পনার জন্য বৈঠকে সোমবার বৈঠকে বসেছিল জামায়াত নেতারা।

সরকারকে বেকায়দায় ফেলাই ছিল তাদের পরিকল্পনা— এমনটি সংবাদ সম্মেলন করে জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পশ্চিম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান।

ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, রাজধানীর মিরপুরে অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সাবেক দুই সংসদ সদস্যসহ (এমপি) ১৩ নেতাকর্মীকে আটক করে পল্লবী থানা ও গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার মিরপুর-১১ এর সি ব্লকের ১০ নম্বর রোডের ৪নং বাসা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে বেশ কয়েকটি লাঠি ও ২০টি তাজা বোমা উদ্ধার করা হয়।