মেইন ম্যেনু

‘১৯৫ পাকিস্তানি সেনার তথ্য সংগ্রহে কমিটি’

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালে যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত ১৯৫ পাকিস্তানি সেনা সদস্যের তথ্য সংগ্রহের জন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার জাতীয় সংসদের একাদশ অধিবেশনে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

আইনমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানের ১৯৫ বা ততোধিক যুদ্ধাপরাধী সেনা কর্মকর্তার তথ্য সংগ্রহ করার লক্ষ্যে তদন্ত কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি প্রাথমিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধী সেনা কর্মকর্তা সংক্রান্ত তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ অব্যাহত আছে। তথ্য পাওয়ার পরে যাচাই-বাছাই শেষে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

মুক্তিযুদ্ধে জয়লাভের পর বাংলাদেশ-ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে ত্রিদেশীয় চুক্তির আওতায় নিজ দেশে বিচারের মুখোমুখি করার শর্তে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে আটক ১৯৫ সেনা সদস্যকে ফেরত নেয় পাকিস্তান। এরপর ৪৪ বছর পার হলেও তাদের বিচার করা হয়নি দেশটি।

সম্প্রতি বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের সাজা কার্যকরের পর পাকিস্তান উদ্বেগ প্রকাশ করে বিবৃতি দেওয়া এবং একাত্তরের গণহত্যার দায় অস্বীকার করায় সেই ১৯৫ সেনা সদস্যের বিচারের দাবি নতুন করে আলোচনায় আসে।