মেইন ম্যেনু

১ মাইক্রোবাসে ৫১ জন যাত্রী!

এক মাইক্রোবাসে ১০ জন নয়, ২০ জন নয়, একসঙ্গে চড়ল ৫১ জন যাত্রী! বাবারে! যেন বিশ্বাসই হতে চায় না। এমন অবিশ্বাস্য কাণ্ডটিই এবার ঘটেছে ইংল্যান্ডের ওয়ারেস্টারশায়ারের মেলভার্নে। আর এর মাধ্যমেই এর যাত্রীরা গড়ে ফেলে এক অনন্য বিশ্বরেকর্ড। একটি মাইক্রোবাস সাধারণত কত আসনবিশিষ্ট হয়, সাত-আট? এ রকম একটা মাইক্রোবাসে সর্বোচ্চ কতজন উঠতে পারে বলে মনে করো? তা হতে পারে ১০-১২ জন। কী কাণ্ড বলো তো, এ রকম একটা মাইক্রোবাসেই উঠে পড়ল ৫১ জন। ভক্সওয়াগনের নাম শুনেছ নিশ্চয়ই? ভক্সওয়াগন হচ্ছে বিশ্ববিখ্যাত গাড়ি নির্মাণ কোম্পানি। এই কোম্পানির একটি মাইক্রোবাসের নাম হচ্ছে ক্যাম্পারভ্যান, যা নির্মিত হয়েছিল ১৯৭৪ সালে। এই ক্যাম্পারভ্যান মাইক্রোবাসে চড়েই রেকর্ডটি গড়েছে তারা। গত ৪-৬ সেপ্টেম্বর ইংল্যান্ডের ওয়ারেস্টারশায়ারের মেলভার্নে অনুষ্ঠিত হয় বাসফেস্ট ভ্যান ফেস্টিভ্যাল।

এই ফেস্টিভ্যালের দ্বিতীয় দিনে রেকর্ডটি গড়েন তারা। রেকর্ড গড়ার বাইরেও এর ছিল এক মহৎ উদ্দেশ্য, তা হচ্ছে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের জন্য অর্থ সংগ্রহ করা। তাদের উদ্দেশ্য ছিল এ আয়োজনের মাধ্যমে প্রাপ্ত অর্থ দেশটির মেইক এ উইশ ফাউন্ডেশনকে দেওয়া। মেইক এ উইশ ফাউন্ডেশন মূলত ক্যানসার আক্রান্ত শিশু-কিশোরদের নিরাময়ে কাজ করে। ফাউন্ডেশনের কাজকে আরো গতিশীল করতেই এই অর্থ সংগ্রহের উদ্যোগ। কমফোর্ট ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি নামক একটি ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির পরিকল্পনামতো রেকর্ডটি গড়া হয়। একটি মাইক্রোবাসের এমন অল্প জায়গায় এত মানুষ উঠতে কী পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে কল্পনা করে মনে হয় তোমার বেশ হাসি পাচ্ছে, তাই না? ভীষণ গাদাগাদি করে অর্থাৎ দাঁড়িয়ে, শরীর বাঁকিয়ে, একজনের কোলে অন্যজন বসে, কুঁজো হয়ে, অনেক ঠেলাঠেলি, ধাক্কাধাক্কি করে মাইক্রোবাসে উঠতে হয় তাদের, যা অনেকটা অ্যাডভেঞ্চারের মতোই! বাসফেস্ট ভ্যান ফেস্টিভ্যালের আয়োজনে হাজির ছিল প্রায় ৫০০ গাড়ি এবং দর্শক ছিল প্রায় ২৫ হাজার।

বিবিসির সাংবাদিক জেমস লুইস বিরল এ ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করেছেন খুব কাছে থেকে। তিনি আবেগের সঙ্গে বলেন, ‘বিভিন্ন সময় বিশ্বরেকর্ড গড়ার নানা আয়োজনে আমি সম্পৃক্ত ছিলাম। তবে এটিই ছিল সবচেয়ে আকর্ষণীয় ও শ্বাসরুদ্ধকর।’ এতে অংশ নেওয়া যাত্রীদের মধ্যে একজনের নাম কেলভিন, তিনি তাঁর অভিজ্ঞতার কথা বলেন, ‘মাইক্রোবাসে বিভিন্নজনের হাত ও বাহু আমার মুখ ঘেঁষেছিল। তবু এটি আমার জন্য বেশ চমৎকার একটি অভিজ্ঞতা। চিন্তাই করতে পারিনি, প্রথম চেষ্টায়ই আমরা সফল হব।’

চাইলে যে কেউ ডেইলি মেইলে গিয়ে মাইক্রোবাস সম্পর্কে আরো তথ্য জানতে পারো।