মেইন ম্যেনু

২০১৫ সালের পারিশ্রমিক হিসাবে দামী ১০ অভিনেত্রী

বলিউডে অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিকের তারতম্য নিয়ে অনেকবারই মুখ খুলেছেন অভিনেত্রীরা। কিন্তু তাতেও কমেনি পার্থক্য। দেখে নেবো ২০১৫ সাল শেষে পারিশ্রমিকের হিসাবে বলিউডের প্রথম দশে রইলেন কোন কোন অভিনেত্রী-

১. কঙ্গনা রনওয়াত: ১০-১১ কোটি
জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পরও তাকে দু’বছর কাজ ছাড়া বসে থাকতে হয়েছিল, ‘কুইন’ ছবির সাফল্যের পর থেকেই উর্ধমুখী সেই কঙ্গনার ক্যারিয়ার। এই মুহূর্তের বলিউডের সবচেয়ে দামী অভিনেত্রী কঙ্গনা। ছবি পিছু তার পারিশ্রমিক ১০ থেকে ১১ কোটি।

২. কারিনা কাপূর: ৯-১০ কোটি
বিয়ের পরই নায়িকাদের বলিউড ক্যারিয়ার শেষ, এই ধারনাকে দুমড়ে মুচড়ে ফেলে দিয়েছেন কারিনা। শুধু বিবাহিত নন, তার বয়সও কিন্তু ৩৫। প্রথম সারির প্রায় সব অভিনেত্রীর চেয়েই বয়সটা বেশ বেশি। তাও বছরের ব্লকবাস্টার ‘বজরঙ্গী ভাইজান’ ছবির নায়িকা কারিনাই। ছবি পিছু এখন কারিনার পারিশ্রমিক ৯ থেকে ১০ কোটি।

৩. দীপিকা পাডুকোন: ৮-৯ কোটি
অভিনয় ক্ষমতা, ছবির বাণিজ্যিক সাফল্য, গ্ল্যামার সবদিক দিয়ে বিচার করতে গেলে দীপিকা পাডুকোনই যে বলিউডের এক নাম্বার অভিনেত্রী- তা আর আলাদা করে বলে দিতে হয় না। এই মুহূর্তে ছবি পিছু দীপিকার পারিশ্রমিক ৮ থেকে ৯ কোটি। তার হাতে বিজ্ঞাপণের সংখ্যাও সর্বাধিক।

৪. প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: ৮-৯ কোটি
বর্তমান বলিউডের সবচেয়ে বর্ণিল অভিনেত্রী তিনি। ঝিলমিল থেকে মেরি কম হয়ে ওঠার কৃতিত্ব রয়েছে, রয়েছে জাতীয় পুরস্কারের সম্মানও। ছবি পিছু প্রিয়াঙ্কার পারিশ্রমিক এখন ৮ থেকে ৯ কোটি। বোদ্ধাদের ধারণা, তা আরও বেশিও হতে পারতো।

৫. বিদ্যা বালান: ৬ থেকে ৭ কোটি
বলিউডের সবচেয়ে নাকউঁচু অভিনেত্রী! চিত্রনাট্যে তার চরিত্রই সর্বেসর্বা না হলে সেই ছবিতে কাজ করেন না বিদ্যা। সুবিচারও করেন সব চরিত্রের সঙ্গেই। তাই টানা ২ বছর ছবি হিট না হলেও ২০১৫ সালে দাঁড়িয়ে ছবি পিছু বিদ্যার পারিশ্রিমক ৬ থেকে ৭ কোটি।

৬. ক্যাটরিনা কাইফ: ৬ থেকে ৭ কোটি
১২ বছর কাটিয়েও আজও বলিউডি ছবির উপরি পাওনা ক্যাটরিনা। ব্লকবাস্টার ছবির আই ক্যান্ডি তিনি। সৌন্দর্য্য আর হিট ছবির জেরে ক্যাটরিনার পারিশ্রমিক এখন বিদ্যার কাছাকাছি। ছবি পিছু ৬ থেকে ৭ কোটি।

৭. অানুষ্কা শর্মা: ৫ থেকে ৬ কোটি
প্রত্যেক ছবিতে নিজেকে প্রমাণ করছেন অানুষ্কা। বলিউডে পায়ের তলায় শক্ত মাটি পেয়ে গিয়েছেন অভিনয় ক্ষমতা, স্মার্টনেসের জোরে। ২০১৫ সালে তার পারিশ্রমিক ৫ থেকে ৬ কোটি। আগামীদিনে তার পারিশ্রমিক যে বাকি প্রায় সকলকেই ছাপিয়ে যাবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

৮. সোনাক্ষি সিনহা: ৫ থেকে ৬ কোটি
মাঝের কয়েকটা বছর সোনাক্ষি ছিলেন বলিউডের লক্ষ্মী। যে ছবিতেই তিনি থাকতেন, সেই ছবিই অন্তত ১০০ কোটির ব্যবসা আনতো। তাই চড়চড় করে বেড়েছিল সোনাক্ষির পারিশ্রমিক। এখন সেই বাজার নেই, তবে ২০১৫ সালেও সোনাক্ষির ছবি পিছু পারিশ্রমিক ৫ থেকে ৬ কোটি।

৯. আলিয়া ভাট: ৩ কোটি
সবে তো শুরু, বলিউডে মাত্র তিনটি ছবি করেছেন আলিয়া। কিন্তু এর মধ্যেই আলিয়ার মধ্যে ভবিষ্যতের সুপারস্টার দেখছেন অনেকেই। এখনই আলিয়ার পারিশ্রমিক ছবি পিছু ৩ কোটি। প্রযোজকরা খুশি খুশি দিয়েও দেন। কারণ ‘পিকচার তো এখনও বাকি’…

১০. পরিনীতি চোপড়া: ৩ কোটি
এখনও সেভাবে হিট ছবি নেই। তবে তাতে কী? ছবি হিট বা না হোক অভিনেত্রী পরিনীতি নিজের জাত চিনিয়ে দিয়েছেন। পরিনীতির পারিশ্রমিক এখন ছবি পিছু ৩ কোটি।