মেইন ম্যেনু

২০১৮ সালের মধ্যে দেশের সব গ্রামে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে যাবে

জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম বলেছেন, সরকার ২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি গ্রামে বৈদ্যুতিক সেবা পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার করলেও এর আগেই ২০১৮ সালের মধ্যেই দেশের সব গ্রামে বৈদ্যুতিক সংযোগ পৌছে যাবে। এ লক্ষ্যে শেখ হাসিনা সরকার কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

দিনাজপুর সদর উপজেলার ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের পূর্ব পারগাঁও গ্রামে মঙ্গলবার বিকেলে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

হুইপ ইকবালুর রহিম বলেন, জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেয়ার পর দেশে বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক উন্নয়ণ কর্মকান্ড সম্পন্ন করেছে। নতুন নতুন বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে দেশে সাড়ে ৩ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন থেকে প্রায় ১২ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করেছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের সার্বিক ক্ষেত্রে উন্নয়ন ঘটাতে চায়। আর এ কারনেই বিদ্যুৎ খাতকে গুরুত্ব দিয়ে এর উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। কারণ বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে উন্নয়ন হলেই অন্যান্য ক্ষেত্রে উন্নয়ন সম্ভব হবে।

সদর উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়ণ কর্মকান্ডের কথা উল্লেখ করে ইকবালুর রহিম বলেন, গত ৬ বছরে এ উপজেলার প্রত্যেকটি মসজিদ-মন্দির ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ঘটানো হয়েছে। গ্রামের অধিকাংশ রাস্তা পাকাকরন করা হয়েছে। তিনি বলেন, আগামীতে সব রাস্তা পাকাকরন করা হবে। উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে তিনি বর্তমান প্রধনমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশারী করার আহবান জানান।

এ উপলক্ষে পল্লী বিদ্যুত সমিতি-১ এর সচিব মোঃ শফিকুল ইসলমা মানিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর মহাব্যবস্থাপক কাজী মোহাম্মদ আলী, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদ সরকার, সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন, ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোবারক আলী শাহ্, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইউসুফ আলী তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক উত্তম বসাক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক বসাক।

শেষে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম আনুষ্ঠানিক সুইচ অন করে পূর্ব পারগাঁও গ্রামের ৩০টি বাড়ীতে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করেন।