মেইন ম্যেনু

২০২০ সাল নাগাদ তাইওয়ান হামলা করবে চীন

তাইওয়ানে হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন। এ লক্ষ্যেই দেশটি সক্রিয়ভাবে তাদের সামরিক বাহিনীর শক্তি বৃদ্ধি করে চলেছে এবং ২০২০ সাল নাগাদ তারা তাইওয়ানে আক্রমণ চালানোর মত শক্তি অর্জন করবে। তাইওয়ানের এক সামরিক প্রতিবেদনে এ অভিযোগ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত জাতীয় প্রতিরক্ষা প্রতিবেদন-২০১৫’তে বলা হয়েছে, ‘তাইওয়ানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক সম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও চীন ব্যাপক পরিসরে রণশক্তি বৃদ্ধি অব্যাহত রেখেছে, যা সমুদ্র প্রণালীর দুই পাশে একটি সামরিক সংঘাতের হুমকি জিইয়ে রাখছে।’

এতে বলা হয়, ‘চীনের সামরিক ব্যয় বৃদ্ধির হার গত এক দশকে গড়ে দ্বিগুণ সংখ্যায় উন্নীত হয়েছে। ফলে সামরিক ব্যায়ের দিক দিয়ে বিশ্বে তারাই এখন দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। চীনের আগে রয়েছে একমাত্র যুক্তরাষ্ট্র।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় প্রকাশিত এ দ্বি-বার্ষিক প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, এ অঞ্চলে যে কোনো ধরনের বিদেশি আগ্রাসন ঠেকাতে চীন তার নৌ ও বিমান বাহিনীকেও শক্তিশালী করে তুলছে। চীন বিশ্বাস করে, তারা তাইওয়ান আক্রমণ করলে বিদেশী হস্তক্ষেপই হবে তাদের সবচেয়ে বড় উদ্বেগের বিষয়।

উল্লেখ্য, ১৯৪৯ সালে এক গৃহযুদ্ধের পর চীন ও তাইওয়ান ভাগ হয়ে যায়।

তবে তাইওয়ানের বর্তমান চীনপন্থী প্রেসিডেন্ট মা ইং-জিয়াউ ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে দু’দেশের সম্পর্ক উন্নত হয়েছে।

সূত্র:ইয়াহু নিউজ