মেইন ম্যেনু

২০৪১-এর মধ্যে কারিগরি শিক্ষায় যুক্ত হবে অর্ধেক শিক্ষার্থী

২০২১ সালের মধ্যে ২০ শতাংশ ও ২০৪১ সালের মধ্যে ৫০ শতাংশ শিক্ষার্থী কারিগরি শিক্ষায় যুক্ত হবে। কারিগরি শিক্ষার পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে দেশ বিশ্বে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে মাথা তুলে দাঁড়াবে।

রোববার কলোম্বা প্ল্যান স্টাফ কলেজ আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী ইন কান্ট্রি-ওয়েব ব্যাজড টিচিং এন্ড লার্নিং অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

তিনি আরো বলেন, ‘বর্তমানে কারিগরি বা ভোকেশনাল শিক্ষার ওপর সরকার সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে। ২০০৯ সালে মোট শিক্ষার্থীর মাত্র ১ শতাংশ কারিগরি শিক্ষায় পড়াশোনা করতো। বর্তমানে ১০ শতাংশ শিক্ষার্থী এ শিক্ষায় অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।’

কারিগরি শিক্ষার বিস্তারের জন্য সাধারণ মানুষকে সচেতন করার গুরুত্বারোপ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘তাদেরকে জানাতে হবে কারিগরি শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা। জোর দিতে হবে শিক্ষকদের গুণগতমানের উপর। কারণ শিক্ষা প্রদানের দায়িত্ব শিক্ষকদের উপর ন্যস্ত। শিক্ষকরাই পাঠদানের প্রধান নিয়ামক।’

প্রযুক্তির বিস্তার সম্পর্কে বলতে গিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘মানুষ নিজেদের প্রয়োজনে প্রযুক্তি তৈরি করছে। সেই প্রযুক্তি ব্যবহারের আগে অবশ্যই ভালো মানুষ হতে হবে। নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ পারে প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে দেশ ও জাতির কল্যাণ বয়ে আনতে।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বায়নের এ যুগে তথ্যের সঙ্গে প্রযুক্তির মেলবন্ধন ঘটাতে হবে। আমাদের খুব ভালো সম্ভবনা আছে। সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হবে। লক্ষ্য বাস্তবায়নে সব ধরনের পরিকল্পনা আমাদের আছে। আমাদের মাথায় রাখতে হবে- অপচয় নয়, সম্পদ বা অর্থের সর্বোচ্চ ব্যবহার। কারণ আমাদের সম্পদ অল্প। এ অল্প অর্থ দিয়ে অনেক দূরের পথ পাড়ি দিতে হবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের মহাপরিচালক অশোক কুমার (সভাপতি)। শিক্ষান্ত্রণালয়ের সচিব (ভারপ্রাপ্ত) এএস মাহমুদ (বিশেষ অতিথি)। কলোম্ব প্ল্যান স্টাফ কলেজের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. কুলানথাইভেলসহ অন্যান্যরা।