মেইন ম্যেনু

৩০০ টাকার ইলিশ কিনলেই কুপন ফ্রি! বিক্রি হচ্ছে মাইকিং করে

প্রচুর পরিমাণে ইলিশ ধরা পড়ায় সারা দেশেই অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার মাছের দাম অনেক কম। তাইতো ক্রেতা টানতে এবার ভিন্ন কশৈল নিয়েছেন সাতক্ষীরার মাছ ব্যবসায়ীরা। মাইকিং করে চলছে মাছ বিক্রি। ৩০০ টাকার ইলিশ কিনলে মাছ বিক্রেতারা লাকি কুপন ফ্রি দিয়েছেন। এ লাকি কুপনে রয়েছে একটি ১৪ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন, বাইসাইকেলসহ অসংখ্য পুরস্কার।

মঙ্গলবার মাইকিংয়ে করে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এদিনই ছিল এ মৌসুমের ইলিশ মাছ বিক্রির শেষ দিন।

জেলা প্রশাসন ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ মাছ ধরা, বিক্রয় করা এবং পরিবহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

সাতক্ষীরা সুলতানপুর বড়বাজারের ইলিশ বিক্রেতা নজরুল ইসলাম, আবুল বাশারসহ অনেকেই জানান, এ বছর সাগরে প্রচুর পরিমাণ ইলিশ ধরা পড়েছে। তাছাড়া এবছর ইলিশ পাচার বন্ধে প্রশাসন কঠোর ভূমিকা পালন করায় সাধারণ মানুষ মাছটি কিনতে পেরেছে। অন্যবার যে মাছের দাম ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা এবছর সে মাছ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকায়।

মাছ ক্রেতা এম জিল্লুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম মনিসহ অনেকেই বলেন, ‘মাছ পাচার বন্ধ হওয়ার কারণে গরিব মানুষও তাদের সন্তানদের মুখে ইলিশ তুলে দিতে পারছেন। এক কেজি ইলিশ কিনতে গত বছর এক বস্তা (দেড় মণ) ধান বিক্রি করতে হয়েছে। এবছর একবস্তা ধান বিক্রির টাকায় চার কেজি ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে।’

ক্রেতারা আরও জানান, ইলিশের দাম সহনীয় পর্যায়ে থাকায় মাংস ও ডিমের দামও কমেছে।

সাতক্ষীরা সুলতানপুর বড়বাজার মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম মোড়ল বলেন, চলতি বছর ইলিশের দাম ২০০-৮০০ টাকা পর্যন্ত কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এতে করে সব শ্রেণির মানুষ ইলিশ মাছ কিনতে পারছেন।