মেইন ম্যেনু

৩০ বছরের আগেই কোটিপতি হতে পারেন আপনি, সাথে পাবেন বোনাসও

লাখ লাখ টাকা আছে যার, তাকেই তো কোটিপতি বলা হয়! এত টাকা উপার্জন করা যে খুব কঠিন ব্যাপার তা সবাই এক বাক্যে স্বীকার করবেন।
কিন্তু, বাস্তবতা বলছে অন্য কথা। ঠিক মতো যদি হিসাব কষে এগোনো যায় তবে ৩০ বছরের আগেই আপনি হতে পারেন কোটিপতি। ভাবছেন এও কি সম্ভব! হ্যা, সম্ভব। তা কি করে সম্ভব তাই জানতে চান তো?

ছোট্ট একটি পরিকল্পনাই আপনাকে কোটিপতি করে তুলবে। এ জন্য আপনাকে একটি সঞ্চয় খুলতে হবে। সেই সঞ্চয়ই ৩০ বছরে পা দেওয়ার আগেই আপনাকে করে তুলতে পারে কোটিপতি। এবার দেখে নেয়া যাক এক এক করে।

• প্রথম বছর: শুরুটা করুন মাত্র ৫ হাজার টাকা দিয়ে। সেটা জমান কোনও লিকুইড ফান্ডে। সব চেয়ে ভাল হয় কোনও ডেবিট ফান্ডে রাখলে। সেক্ষেত্রে টিডিএস কাটার কোনও গল্প থাকবে না।

• দ্বিতীয় বছর: পরের ধাপে প্রতি মাসে সঞ্চয়ের পরিমাণটা অন্তত ১০ শতাংশ বাড়ান। মানে, ৫০০০ টাকার বদলে জমা দিন ৫৫০০ টাকা।

• তৃতীয় থেকে অষ্টম বছর: তৃতীয় বছর থেকে সঞ্চয়ের পরিমাণ ওই একই ভাবে ১০ শতাংশ করে বাড়ান। শুধু তফাতের মধ্যে এবার সঞ্চয়টা করুন কোনও ট্যাক্স সেভিং ইকুইটি ফান্ডে। তাহলে ৩ বছরের মাথায় দাঁড়াচ্ছে ৬১০০ টাকা, ৪ বছরে ৬৭০০ টাকা! এবং, এভাবে বাড়তেই থাকছে!

এভাবেই ৩০ বছরে পা দেওয়ার আগেই আপনার অ্যাকাউন্টে জমা পড়ছে লক্ষ টাকা! ইচ্ছে করলে সঞ্চয়ের পরিমাণ বাড়িয়ে একই সময়ে কোটিপতিও হয়ে যেতে পারেন আপনি!

অবশ্য এর সঙ্গে আরও দুটো দিক থেকে বোনাস পাচ্ছেন আপনি। তা হলো-

এক. দু বছরের মধ্যেই অন্তত ১.৩৫ লক্ষ টাকার একটা এমার্জেন্সি ফান্ড আপনার তৈরি হয়ে যাবে। দরকারে কাজেও আসবে ওই সঞ্চয়।
দুই. পাশাপাশি, ট্যাক্স সেভিং ইনভেস্টমেন্ট নিয়ে আপনার বছর বছর মাথা ঘামানোর দরকার হবে না।