মেইন ম্যেনু

৩ দিনেই বাসের টিকেট উধাও, একমাত্র ভরসা ট্রেন

মাত্র ৩ দিনেই বাসের টিকেট উধাও। কিন্তু কিভাবে ? খোজ নিয়ে জানা গেলো, দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে চলাচলকারী কোচ ও বাসের সব আগাম টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। যারা সংগ্রহ করতে পারেননি তাদের একমাত্র ভরসা এখন ট্রেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার থেকে রাজধানীর গাবতলী, শ্যামলী ও কল্যাণপুর থেকে শুরু হয় বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি৷ তবে সায়েদাবাদা কিংবা মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে চলাচলকারী কোনো বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি এখনও শুরু করা হয়নি৷

আজ রবিবার গাবতলী বাস টার্মিনালে বিভিন্ন রুটের কাউন্টারগুলোতে যাত্রীদের ভিড় ছিল না বললেই চলে। হানিফ, নাবিল, ডিপজল শ্যামলী ও কেয়াসহ বিভিন্ন কোচের কাউন্টারে ঈদের অগ্রিম টিকিট শেষ নোটিশ লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে কিছু লোকাল বাসের টিকিট এখনও পাওয়া যাচ্ছে। যারা টিকিট সংগ্রহ করতে পারেননি তারা ট্রেনের আশায় প্রহর গুণছেন।

গাবতলী টার্মিনালে টিকিট কিনতে আসা জলিল মিয়া জানালেন, দুদিন ঘুরেও তিনি দিনাজপুরের কোনাে টিকিট পাননি৷ এখন তাকে ট্রেনের টিকিটের জন্য কমলাপুরে যেতে হবে৷

সরকারি সংস্থা বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) বাসের টিকিট বিক্রি শুরু করবে ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে। এর একদিন আগে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে পাওয়া যাবে ট্রেনের টিকিট।

রেলওয়ে জানিয়েছে, ১৫ সেপ্টেম্বর পাওয়া যাবে ২০ সেপ্টেম্বরের ট্রেনের টিকিট; ১৬ তারিখে বিক্রি হবে ২১ তারিখের টিকিট, ১৭ সেপ্টেম্বর পাওয়া যাবে ২২ তারিখের টিকিট, ১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর যথাক্রমে ২৩ ও ২৪ সেপ্টেম্বরের টিকিট পাওয়া যাবে। ২৩, ২৪, ২৫, ২৬ ও ২৭ সেপ্টেম্বর পাওয়া যাবে যথাক্রমে ২৭, ২৮, ২৯, ৩০ সেপ্টেম্বর ও ১ অক্টোবরের টিকিট।

তবে একজন যাত্রী চারটির অধিক টিকিট কিনতে পারবেন না। এছাড়া বিক্রিত টিকিট কোনো ক্রমেই ফেরত নেয়া হবে না।