মেইন ম্যেনু

৩ হামলাকারীর ফেসবুক বন্ধ করলো কে?

ঢাকার হলি আর্টিসান বেকারিতে হামলাকারী হিসেবে শনাক্ত হওয়া কমপক্ষে তিনজনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ (ডিঅ্যাক্টিভেট) করে দেয়া হয়েছে। তবে কারা এসব ফেসবুক বন্ধ করেছে তা কেউ জানেন না।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘হামলাকারীদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ার জন্য সরকার কোনো অনুরোধ জানায়নি। সরকারের পক্ষ থেকে যদি কোনো উদ্যোগ নেয়া হতো তাহলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় অথবা ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার তা জানতে পারতো।’

১ জুলাই হলি আর্টিসানে জিম্মি ঘটনার পর পাঁচজন হামলাকারীর পাশাপাশি কমপক্ষে ২০ জন জিম্মি নিহত হয়। নিহত হামলাকারীদের মধ্যে তিনজন হচ্ছে নিরবাস ইসলাম, মীর সাবিহ মুবাশ্বির এবং রোহান ইমতিয়াজ। এই তিনজনকে তাদের সহপাঠীরা ফেসবুকের মাধ্যমে শনাক্ত করেছে।

আইএসের নিউজ এজেন্সি আমাক গুলশানে পাঁচ হামলাকারীর ছবি প্রকাশ করার পর ২ জুলাই বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারী বন্ধু ও পরিচিতজনরা হামলাকারীদের ছবি মিলিয়ে তাদের শনাক্ত করে। আর ৪ জুলাই সোমবার থেকে উপরোক্ত তিনজনের ফেসবুক পেজ আর দেখা যাচ্ছে না। এতে জনমনে মনে প্রশ্ন জেগেছে, এই তিন হামলাকারীর ফেসবুক প্রোফাইল কে বা কারা বন্ধ করলো?

সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই তিন হামলাকারীর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধে সরকার কোনো উদ্যোগ নেয়নি। তাই ধারণা করা হচ্ছে, এই তিন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হামলাকারী অথবা তাদের সহযোদ্ধারা তা বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু কে বা কারা এসব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করলো এবং কেন বন্ধ করলো, তা পরিষ্কার নয়। বিষয়টিকে ঘিরে রহস্যের জন্ম নিতে শুরু করেছে।