মেইন ম্যেনু

৪৬৮ কর্মীকে বিদায় জানাচ্ছে বাংলালিংক

অবশেষে মোবাইল ফোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ স্বেচ্ছায় অবসর (ভিএসএস) স্কিমে ৪৬৮ জনকে আনুষ্ঠানিক বিদায় দিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দিনব্যাপী টিম ভিত্তিক বিদায় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই বিপুল সংখ্যক কর্মীকে বিদায় জানাবে বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ভলেন্টারি সেপারেশন স্কিম (ভিএসএস) নামে এক ঘোষণায় স্বেচ্ছায় চাকরি ছাড়াতে আগ্রহীদের ২৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আবেদন করতে বলেছিল কর্তৃপক্ষ। এর প্রেক্ষিতে ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ৪৪০ জন এবং পরে আরো ২৮ জন চাকরি ছাড়তে আগ্রহ প্রকাশ করেন। গত ৬ মার্চ আগ্রহীদের নামের তালিকা প্রকাশ করে বাংলালিংক। এর আগে কর্মীরা ভিএসএস-এর সময় বৃদ্ধির জন্য বারবার অনুরোধ করলেও নির্ধারিত সময়ের পরে আবেদনও গ্রহণ করে কর্তৃপক্ষ। এরপর অনেকটা তড়িঘড়ি করেই আগ্রহী মোট ৪৬৮ জনকে বিদায় দিচ্ছে।

ওই সময়ে বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এরিক অস এক মেইলে বলেন, যারা হিংস্র, ব্যবসা বিঘ্নকারী কমসূর্চির আয়োজন করছে এবং আমাদের সম্পর্কে ভুয়া তথ্য ও গুজব ছড়াচ্ছে তাদের সঙ্গে সংলাপের কোনো কারণ দেখছি না। এটা পরিস্কার করতে চাই যে, ম্যানেজমেন্ট স্বপ্রণোদিত হয়ে প্রত্যেক কর্মীর সঙ্গে আলাদা করে সংলাপ ও আলোচনা করে বিষযটি চূড়ান্ত করেছে।

উল্লেখ্য, আদালত বাংলালিংকের প্রস্তাবিত ‘স্বেচ্ছায় অবসর’ (ভিএসএস) কার্যক্রমসহ ট্রেড ইউনিয়নের কর্মীদের চাকরিচ্যুতি, বদলি, সাময়িক বরখাস্ত, বরখাস্ত ও বেতন বন্ধ করার সকল কার্যক্রমের উপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। কর্মী হয়রানি, ভয়ভীতি প্রদর্শন, ট্রেড ইউনিয়ন কার্যক্রমে বাধা দানের অভিযোগে বাংলালিংক এমপ্লায়িজ ইউনিয়নের শ্রম আদালতে করা মামলার প্রেক্ষিতে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি আদালত এ রায় দিয়েছে।

এ বিষয়ে ১০ দিনের মধ্যে কারণ দর্শাও নোটিশও জারি করে আদালত। তবে বাংলালিংক কর্তৃপক্ষের আবেদনে ভিএসএসের ওই স্থিতাদেশে সোমবার উচ্চ আদালত স্থিতাদেশ দিয়েছেন। ফলে আজ (বৃহস্পতিবার) নির্বিঘ্নেই ৪৬৮ জন কর্মীকে বিদায় দিতে পারবে বাংলালিংক।