মেইন ম্যেনু

৪৮ ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ২৯ কেন্দ্র দখল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: সদর পৌরসভা নির্বাচনে ৪৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৯টি কেন্দ্র দখলের অভিযোগ করেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি।

রোববার সকাল ১০টায় পুনিয়াউট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, ‘ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্র আওয়ামী লীগের একদল সশস্ত্র যুবক জোরপূর্বক কেন্দ্রে ঢুকে ভোট দিচ্ছেন। এছাড়াও জেলার ২৯টি কেন্দ্র সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে দখল হয়ে গেছে। আর বাকিগুলোও দখল হয়ে যাবে।’

প্রশাসনকে উদ্দেশ্য করে হাফিজ বলেন, ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছেন। তাদের কাছে কোনো সহযোগিতা আমি পাইনি।’

প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘প্রিজাইডিং কর্মকর্তারা আওয়ামী লীগের জন্য কাজ করছেন। তারা আসলে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা না। তারা আওয়ামী লীগের এজেন্ট। ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের কারণে আমি পুনিয়াউট সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয়ের প্রিজাইডিং কর্মকর্তার কাছে কেন্দ্রটি স্থগিত রাখার আবেদন করলেও তিনি তা গ্রহণ করেননি।’

পুনিয়াউট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মঞ্জুর হোসেন চৌধুরী জানান, ভোটগ্রহণের কিছুক্ষণ পরই কয়েকজন সশস্ত্র যুবক জোরপূর্বক কেন্দ্রে ঢুকে কিছু ব্যালট পেপার ও ১৬টি ভোটার সিল, ৮টি অফিসিয়াল প্যাড ও ৮টি স্ট্যাম্প প্যাড লুট করে নিয়ে গেছে। ফলে ভোটগ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিত রাখা হয়েছিল। পরে পুনরায় ব্যালট পেপার ও ভোটগ্রহণ সরঞ্জাম এনে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। তাই কারো আবেদন নেয়া হয়নি।