মেইন ম্যেনু

৫০ বছরে পা রাখলেন মিশা সওদাগর

ইচ্ছে ছিল ফুটবলার হওয়ার। ইচ্ছে অনুযায়ী চেষ্টাও ছিল। খেলেছিল দ্বিতীয় বিভাগে। এক সময় খেলতে গিয়ে পায়ের লিগামেন্ট ছিড়ে যায়। সরে যেতে হয় প্রিয় খেলা থেকে। সিন্ধান্ত নিতে হয় ভিন্ন। নতুন মুখের কার্যক্রমের মাধ্যমে সিনেমায় পা রেখেছিলেন নায়ক হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে। তার সেই স্বপ্নও এক সময় ফিকে হয়ে যায়। তবে তিনি হতাশ হননি। ছবির পরিচালকরা তাকে পরামর্শ দিলেন ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করার জন্য। কিন্তু তিনি বললেন, না। তিনি নায়ক হয়েই কাজ করতে চান।

এভাবেই অপেক্ষার সময় কেটে যায়। তমিজউদ্দিন রিজভী তাকে অনুরোধ করলেন তাঁর ছবিতে খল চরিত্রে কাজ করতে। তিনি ভাবলেন, একটি ছবি করে দেখা যায়। আশা আমার আশা ছবিতে সালমানের সঙ্গে আউটডোর শুটিংয়ে গেলেন তিনি। বাসে তাঁর আসন হলো সবার পেছনে। অপমানের এক ধরনের গন্ধ পেলেন। কিন্তু কিছুই করার নেই তাঁর। আউটডোর শুটিং শেষ করে আসার পরই সাতটি ছবি হাতে নিলেন খল অভিনেতা হিসেবে। নতুন করে এক পরিচয় পেলেন তিনি। সেখান থেকে কাজ করতে করতে এখন ৮০০ ছবির অভিনেতা।

যার কথা এতক্ষণ বলছিলাম তিনি আর কেউ নন। আমাদের সবার প্রিয় মিশা সওদাগর। ব্যস্ত এই মানুষটি খলনায়ক হলেও সত্যিকার জীবনে তিনি একজন নায়কই বলা চলে। তাঁর বিরুদ্ধে অসদাচরণের কোনো অভিযোগ নেই। সদা হাসিখুশি একজন মানুষ।

আজ এই মানুষটির জন্মদিন। আজকের এই দিনে ময়ের কোল জুড়ে পৃথিবীর আলো দেখেছিলেন মিশা সওদাগার। মিশা সওদাগর ৫০ বছরে পা রাখলেন। খুব সুখি একজন মানুষ মিশা।

মিশা বলেন, মানুষ এর জীবন একটা,জন্ম একটা, কিন্তু আনন্দে পরিপূর্ণ থাকে কিছু বিশেষ দিন, আজ আমার ৫০ তম জন্মদিন, পৃথিবীর সমস্ত মানুষের দোয়া ও ভালবাসা চাই।

আওয়ার নিউজ বিডি পরিবারের পক্ষথেকে এই খ্যতিমান অভিনেতার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করছে সেই সাথে তার দীর্ঘয়ু কামনা করছে। শুভ জন্মদিন